লাল ঝাণ্ডার দখলে দিল্লি। মোদী বিরোধী স্লোগানে কাঁপল দিল্লির রাজপথ।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ আজ দিল্লিতে ঐতিহাসিক কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ যাত্রা সংগঠিত হচ্ছে। সারা দেশ জুড়ে লাখ লাখ কৃষক শ্রমিক উপস্থিত হয়েছেন দিল্লির রাস্তায়। বিজেপি সরকারের জনবিরোধী নীতি থেকে শুরু করে কৃষক শ্রমিকের অধিকার রক্ষার লড়াইকে সামনে রেখেই শুরু হয় এই যাত্রা। ১৫ দফা দাবি কে সামনে রেখে এই মিছিল চলছে দিল্লির রাস্তা জুড়ে।

#MazdoorKisanSangharshRally র ১৫ দফা দাবি গুলি জেনে নিনঃ
১। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, সর্বজনীন গণবণ্টন ব্যবস্থা চালু, অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের আগাম বানিজ্যে নিষেধাজ্ঞা।
২। সম্মানজনক কর্মসংস্থান বাড়াতে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ।
৩। সব শ্রমিকের জন্য প্রতিমাসে নুন্যতম ১৮,০০০ টাকা মজুরি ঘোষণা
৪। শ্রম আইনে শ্রমিকবিরোধী সংশোধনী প্রত্যাহার।
৫। স্বামীনাথন কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী কৃষকের ফসলের সহায়ক মূল্য ঘোষণা এবং সময়মতো ফসল সংগ্রহ।
৬। গরিব কৃষক এবং খেতমজুরদের ঋণ মকুব প্রকল্প বাস্তবায়ন।
৭। খেতমজুরদের জন্য সুসংহত কেন্দ্রীয় আইন তৈরি করা।
৮। সমস্ত গ্রামীণ এলাকায় এম এম রেগা প্রকল্প চালু এবং শহর অঞ্চলে চালুর জন্য আইন সংশোধন।
৯। সকলের খাদ্য, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও আবাসনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।
১০। সর্বজনীন সামাজিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা।
১১। কর্মী নিয়োগে চুক্তি ব্যবস্থা বন্ধ করা এবং পুরুষ-মহিলা নির্বিশেষে সমকাজে সমবেতন চালু
১২। পুনর্বণ্টনমুখী ভূমিসংস্কার বাস্তবায়ন।
১৩। বলপ্রয়োগে জমি অধিগ্রহণ বন্ধ করা।
১৪। প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য যথাযথ ত্রাণ ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা
১৫। নয়া উদার অর্থনৈতিক নীতির বাস্তবায়ন বন্ধ করা

এই দাবি গুলিকে কেন্দ্র করে বামেদের ডাকা মিছিলে প্রায় স্তব্ধ দিল্লি। পুলিশের থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী ৪ থেকে ৫ লাখ কৃষক এবং শ্রমিক এই মিছিলে আছে। রামলীলা ময়দান থেকে সংসদ পর্যন্ত মিছিল করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে, কেরল থেকে প্রায় ২৫ হাজার শ্রমিক কৃষক অংশ নিয়েছে এই র‍্যালিতে। এই মুহূর্তে কার্যত দিল্লি বামেদের দখলে। আগামী দিনে এর থেকে ও বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামতে চলেছে তারা এমন এই জানিয়েছেন। লোকসভা ভোটের আগে বামেদের নিয়ে বিজেপির চাপ বাড়ল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।