ছেলের খুনের বিচার চাই। যোগীর রাজ্যে বিচার চাইতে, 'ঘর ওয়াপসি' মুসলিমপরিবারের।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ আবার প্রশ্নের মুখে উত্তরপ্রদেশের পুলিশ। বিগত কয়েক বছর ধরেই সাম্প্রদায়িকতার নানান ইস্যুতে সামনে এসেছে উত্তরপ্রদেশের নাম। এবারে ছেলের খুনের সুষ্ঠ তদন্তের দাবীতে সেখানে ধর্মান্তরিত হতে হল ১৩ সদস্যর এক মুসলিম পরিবার কে।

জানা গিয়েছে মাসখানেক আগে বাগপতের বরারাখা জেলার বাসিন্দা, গুলহাসান নামক এক যুবকের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়। তাকে খুন করা হয়েছে এই ভিত্তিতে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন গুলহাসানের বাবা আখতার।

কিন্তু তার অভিযোগ তিনি মুসলিম বলে পুলিশ তার ছেলের মৃত্যুর তদন্ত টুকুও করেনি। স্রেফ আত্মহত্যা বলে মামলা রুজু করেই দায় সেরেছে তারা। এ ব্যাপারে আখতারের স্বজাতের লোকজনও কোনোরকম সাহায্য করেনি তাঁকে বা তাঁর পরিবারকে।

তাই শেষপর্যন্ত ছেলের মৃত্যুর সুবিচার পেতেই এই পথ বেছে নেন তিনি। রীতিমত যজ্ঞের মাধ্যমে আখতার ও তাঁর পরিবারের ১২জন সদস্য হিন্দুধর্ম গ্রহণ করেন। এর আয়োজনে ছিল যুব হিন্দু বাহিনী। আখতার জানিয়েছেন বারবার বলার পরেও তাঁর ছেলের হত্যার কোনো কীনারা না হওয়ায় হতাশা থেকেই এই পথ বেছেছেন তিনি।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতে সব মহল থেকেই নিন্দার ঝড় ওঠে। সমালোচনার মুখে জেলাশাষক ঋষিরেন্দ্র কুমার জানান এ বিষয় জেলার পুলিশ সুপারের সাথে আলোচনা করা হবে। ও শীঘ্রই কোনো সদর্থক পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।