নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করলো না বিপ্লব। সপ্তমে আশা পূরণ না হওয়ায়,ক্ষোভকর্মচারীদের মধ্যে।

১০দিক২৪ ত্রিপুরা প্রতিনিধি, অলোক দেবঃ মঙ্গলবার আগরতলায় প্রেস মিট করে ঘোষণা করা হয় সরকারি কর্মচারীদের সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী বেতন দেওয়া হবে। কিন্তু বাস্তবে তা দেখা যায় "ত্রিপুরা স্টেট পে মেট্রিক্স" ২০১৭ অনুসারে৷ অর্থাৎ হিসেব করে দেখা যায় যে কেন্দ্রীয় বেতন হার থেকে ত্রিপুরা সরকারের বেতন হারে ব্যাপক ফারাক৷ বিজেপি নির্বাচন পূর্বে প্রতিশ্রুতিতে একটি বিজ্ঞাপন ভিডিও বানায় তাতে তাদের নেতা কর্মীরা বলছেন " যাদের বেতন ২০০০০ টাকা তাদের হবে ৪০০০০ হাজার টাকা আর যাদের ৪০০০০ হাজার তারা পাবে ১২৫০০০ টাকা হবে। "




কালকে ঘোষণা করার পর কর্মচারীরা আরও একটি জুমলা উপলব্ধি করতে পারেন৷ কি ছিল প্রতিশ্রুতি? কি পেল ?
যে দিকে সপ্তমে ফলে বেতন দ্বিগুণ হওয়ার কথা তা না হয়ে ০.৩২ শতাংশ মাত্র বাড়ল ৷এর আগে গত বামফ্রন্ট সরকার ২.২৫ শতাংশ হারে বাড়ায়৷ এখন ০.৩২ শতাংশ বেড়ে মাত্র ২.৫৭ শতাংশ হয়৷ শুধু তাই নয় ২৭ টি এলাউন্সের একটিও বাড়ানো হল না, রয়েছে বামফ্রণ্ট আমলের হারেই৷ মাঝখানে বাদ পড়ল এবছরের DA , ৯ শতাংশ DA ঘাটতি ৷

বেতন দ্বিগুণ তো দূরের কথা পাঁচ ভাগের একভাগও বাড়ল না৷ ২০১৬ সালের ১লা জানুয়ারি থেকে এফেক্ট দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ছিল , বাস্তবে ২০১৮ সালের ১লা অক্টোবর থেকে এফেক্ট ঘোষণা করে৷৷ গত বছর বামফ্রন্ট সরকার ১৯.৬৮ শতাংশ বাড়ায়৷ যা এবার কমে ১৪.২ শতাংশে ৷




এক সরকারি কর্মচারী আমাদের বলেন " প্রতিশ্রুতি ছিল সপ্তম বেতন কমিশনের অনুযায়ী বেতন দ্বিগুণ হবে ৷ বাস্তবে সপ্তম তো দূরের কথা বাম সরকারের দেওয়া বেতন থেকেও কম পেলাম ৷ ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত " বিজেপি- আইপিএফটি জোট সরকারের এহেন প্রতিশ্রুতি খেলাপিতে কর্মচারী মহলে প্রচণ্ড ক্ষোভ ৷