সার্টিফিকেট জাল। ধরা পড়ে সভাপতির দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করল ABVP ছাত্র নেতা।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ আবার মুখ পুড়ল বিজেপির। এবার বিজেপির ছাত্র সংগঠনের নেতার নাম উঠে এসেছে দুর্নীতিতে। কিছু দিন আগেই দিল্লিতে বিজেপির ছাত্র সংগঠন জয় লাভ করে। অঙ্কিভ বৈশ্য সেখানে জয়ী হন বিজেপির পক্ষে। অঙ্কিভ বৈশ্য এবিভিপির তরফ থেকে দিল্লী ইউনিভার্সিটির নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হয়েছেন। জানা গেছে তিনি দিল্লী ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি সবার জন্য থিরুভাল্লুভার ইউনিভার্সিটির জাল সার্টিফিকেট দেখিয়েছিলেন। নির্বাচনের পরে যখন এনএসইউআই সার্টিফিকেট গুলি ক্ষতিয়ে দেখতে যায় তখনই থিরুভাল্লুভার ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে জানানো হয় যে অঙ্কিভের সার্টিফিকেটটি আসলে জাল সার্টিফিকেট।




এবার এই সংক্রান্ত তদন্তে মুখ পুড়ল বিজেপির। সভাপতির সমস্তরকম দায়িত্ব থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে তাকে। এর মধ্যেই বৈশ্য নিজেই তার পদত্যাগপত্র দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের VC-র কাছে জমা দিয়েছেন।

তবে এই বিষয়ে উল্টে বিরোধী ছাত্র সংগঠনের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন অঙ্কিত। তিনি তাঁর ফেসবুকে লিখেছে, "সকলের ভালোবাসা ও আশীর্বাদে আমি DUSU-র সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলাম। কিন্তু নির্বাচনের পরেই, NSUI ও আরও কয়েকটি বিরোধীদল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে। DU তে আমার ভর্তি নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলছে। অফিসের গৌরব বজায় রাখতে ও ছাত্রছাত্রীদের কথায় আমি DUSU-র সভাপতির পদ ত্যাগ করেছি।" তবে এই ঘটনায় বিজেপির ছাত্র সংগঠন কে আবার প্রশ্ন চিহ্নের সামনে তুলে ধরল বলেই মত জানিয়েছে বিশেষজ্ঞ মহল।