টিকিট বুকিং এর ক্ষেত্রে নতুন পদ্ধতি আনল IRCTC

ই-টিকিট বুকিং এর জন্য IRCTC নতুন পদ্ধতি চালু করল। এই পদ্ধতিতে বুক করা যাবে তৎকাল টিকিট ও। IRCTC রেল কনেক্ট এর অ্যানড্রয়েড অ্যাপের মাধ্যমে বুক করা যাবে এই ই-টিকিট।
আগে তৎকাল টিকিট বুকিং এর ক্ষেত্রে টিকিট কনফার্ম হবার আগেই টাকা পেমেন্ট করতে হত। নতুন পদ্ধতিতে কনফার্ম হবার পর ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করা যাবে। বা টিকিট বাড়িতে পৌঁছোবার পর ও ক্যাশে টিকিটের দাম দেওয়া যাবে।
নীচে IRCTC এর ই-ওয়ালেট ব্যবহার করে ই-টিকিট বুকিং ও টাকা পেমেন্ট এর পদ্ধতি বর্ণনা করা হল।

১. IRCTC পোর্টাল থেকে টিকিট বুক করতে হলে পে অন ডেলিভারী অপশন টিতে ক্লিক করতে হবে। বা কার্ডের মাধ্যমেও পে করা যাবে। একজন যাত্রী তার পছন্দ তালিকায় খুব বেশী হলে ৬টি বার্থ নিতে পারবেন।

২. এসি তৎকাল টিকিট বুকিং সকাল ১০টা ও নন এসি তৎকাল টিকিট বুকিং সকাল ১১টা থেকে শুরু হবে। তৎকালযাত্রার ক্ষেত্রে টিকিট অবশ্যই যাত্রার আগের দিন বুক করতে হবে।

৩.ডিজিটাল টিকিট SMS/ইমেইল এর মাধ্যমে তৎক্ষণাৎ যাত্রী পেয়ে যাবেন। ও আগামী ২৪ঘন্টার মধ্যে টিকিটের প্রিন্ট কপি পেয়ে যাবেন।

৪.যদি ট্রেন ৩ ঘন্টার বেশী লেট করে তাহলে যাত্রী তৎকালের অতিরিক্ত ভাড়া সহ সমস্ত ট্রেনভাড়াটিই ফেরতের দাবী করতে পারেন। এবং যদি ট্রেনের যাত্রাপথ পরিবর্তন হয় ও যাত্রী পরিবর্তিত যাত্রাপথে যেতে না চান তাহলেও ট্রেনভাড়া ফেরতের দাবী করতে পারেন।

৫.ট্রেন ছাড়ার বা পৌঁছানোর স্টেশন যদি পরিবর্তিত যাত্রাপথের জন্য পাল্টে যায় তাহলেও ট্রেনভাড়া ফেরতের দাবী করতে পারেন।

৬. এছাড়াও যদি আপার ক্লাসের টিকিট লোয়ার ক্লাসে পাঠিয়ে দেওয়া হয় ও যাত্রী না যেতে চান তাহলে ভাড়া ফেরত চাওয়া যায়। অথবা যদি যেতে চান তবে অতিরিক্ত ভাড়া ফেরতের দাবী করা যাবে।