ত্রিপুরার SFI রাজ্য সভানেত্রী আক্রান্ত, গেরুয়া বাহিনীর হাতে।

ত্রিপুরার নির্বাচনের পর থেকেই লেনিন এর মূর্তি ভাঙ্গা হোক বা একাধিক খুনের ঘটনা হোক, দেশের মধ্যে বার বার উঠে এসেছে ত্রিপুরার নাম। এবার আক্রান্ত হলেন ত্রিপুরার SFI রাজ্য সভানেত্রী নীলাঞ্জনা রায়।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিন সন্ধ্যায়। ঐ দিন সন্ধায় আগরতলা শহরে পূর্ব প্রতাপগড়ে বিজেপির দুর্বৃত্ত বাহিনীর দ্বারা আক্রান্ত হন ভারতের ছাত্র ফেডারেশন এর ত্রিপুরা রাজ্য সভানেত্রী নীলাঞ্জনা রায়।

প্রথমে এক দল দুষ্কৃতী তার বাড়ি ঘেরাও করে, তার পর তাকে তাকে ঘর থেকে টেনে এনে প্রচণ্ড মারধোর করা হয় বলে অভিযোগ। নীলাঞ্জনাকে বাঁচাতে তার ভাই এগিয়ে এলে দুষ্কৃতীরা তাকেও মারধোর করে। দুষ্কৃতিরা চলে গেলে পরিস্থিতি সামলে যখন আক্রান্ত নীলাঞ্জনা ঔষধ কেনার উদ্দেশ্যে বিদ্যাসাগর চৌমুহনীতে অটো করে আসছিলেন তখন দ্বিতীয়বার আবার দুষ্কৃতী বাহিনী বাজারের কিছু আগে তার অটো আক্রমণ করে এবং অটো টিকে ভাঙচুর করে। দুর্বৃত্ত বাহিনীর হাত থেকে কোন মতে প্রাণে বাঁচার জন্য নীলাঞ্জনা পাশের একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয়। নীলাঞ্জনার পায়ে এবং শরীরে চোট আছে।

নীলাঞ্জনার দাবি বিজেপির দুষ্কৃতী বাহিনী পরিকল্পিত ভবে এই আক্রমণ করেছে। এখন ও কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।