পালঘরের ঘটনায় নেই কোনো মুসলিম: মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

১০ দিক ২৪ঃ পালঘরে দুই সাধু ও তাঁদের গাড়ির চালককে পিটিয়ে মারার ঘটনায় সাম্প্রদায়িকতা নেই। বিষয়টি নিয়ে  এখনও পর্যন্ত যে ১০১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে নেই এক জন মুসলিম :  মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

অনিল দেশমুখ বলেন,  রাজ্যে বিজেপি-সহ বিরোধীরা ইচ্ছাকৃত ভাবে এই ঘটনাটিকে সাম্প্রদায়িক রেষারেষি বলে দেখাতে চাইছে। পালঘরে গত সপ্তাহে দুই সাধু ও তাঁদের গাড়ির চালককে পিটিয়ে মারা হয়। ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব সিআইডি-কে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত সন্ন্যাসী ঘটনা নিয়ে  সাম্প্রদায়িক কাদা ছোড়া চলছিলো। গত বৃহস্পতিবার  মহারাষ্ট্রের পালঘরে দাদরা ও নগর হাভেলি সীমানার গাঢ়চিনচালে গ্রামে চোর নিয়ে চলে গুজব।  এই অবস্থাতেই গ্রামবাসীরা সামনে পেয়ে যান দুই সাধু এবং তাঁদের গাড়ির চালককে। তাঁদেরই চোর ভেবে নৃশংস ভাবে মারধর শুরু করেন গ্রামবাসীরা।  ঘটনাস্থলেই তাঁদের মৃত্যু হয়। ঠিক হটাৎ হলো এই ব্যাপার টা।

বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেন পালঘরের জেলাশাসক কৈলাস শিন্ডে  ‘‘গ্রামবাসীরা আইন নিজের হাতে তুলে নিয়েছিলেন। তাঁদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সবার কাছে আবেদন, কেউ গুজবে বিশ্বাস করবেন না। কেউ আপনাদের গ্রামে সম্পত্তি বা সন্তানের কিডনি চুরি করতে আসবে না। দুজন পুলিশ কর্মীকে সাসপেন্ড করেছে।'