ধরা পরে গেল বিপ্লব দেবকে 'বাংলাদেশী' থেকে 'ভারতীয়' বানানোর ছক। চাঞ্চল্যকরখবর।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ কিছু দিন আগেই আমাদের সংবাদ মাধ্যমে আমারা প্রকাশ করেছিলাম, যে বিপ্লব দেব 'বাংলাদেশী'। আমারা স্পষ্ট ভাবে লিখে ছিলাম,

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা বিপ্লব দেব নিজেই বিজেপির হিসেবে 'বাংলাদেশী'। ফেসবুক সুত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম বিভাগের কচুয়া উপজেলার সহদেবপুর পূর্ব ইউনিয়নের মেঘদাইর গ্রামেই থাকতো তাঁর পরিবার। এমন কি অনেক আত্মীয় এখন ও বাংলাদেশে রয়েছে বিপ্লব বাবুর। জানা যায় ১৯৭১ সালের 'মুক্তিযুদ্ধ' চলাকালীন বিপ্লব দেবের বাবা-মা ভারতে চলে আসেন।  যেহেতু ১৯৭১ এ বিপ্লব দেবের মা বাবা ভারতে এসেছেন বিজেপির আসামের নাগরিক পঞ্জির হিসেবে বিপ্লব দেবের মা বাবা সহ তিনি ও অনুপ্রবেশকারী।

এই নিয়ে wikipedia তে এবার তথ্য পাল্টানো হল দপ্তর থেকে। দেখা যাচ্ছে বার বার পরিবর্তন করা হয়েছে তার জন্মস্থান। wikipedia তে আগে লেখা ছিল, ১৯৭১-এ বাংলাদেশে চাঁদপুরের কাছুয়া উপজেলায় তাঁর জন্ম । এখন পরিবর্তন করে লেখা হয়েছে, তার জন্ম ত্রিপুরাতে। আগে wikipedia তে লেখা ছিল তার বাবা মা ‘অবৈধভাবে ভারতে আসার পর’, এবার সেখান পরিবর্তন করে করে এখন ‘অবৈধ’ কথাটি তুলে দেওয়া হয়েছে।

 

আগে ছিল এই তথ্য।


 

 

এখন পরিবর্তন করে হয়েছে এই তথ্য।


এই নিয়েই শুরু হয়েছে চর্চা। আসামের ৪০ লক্ষ মানুষ নাগরিক পঞ্জির ফলে অস্তিত্ব সংকটে ভুগছেন। যেখানে নিয়মে বলা হচ্ছে ১৯৭১ এর আগে যারা বাংলাদেশ থেকে এসেছেন তারাই পাবে ভারতীয়ের মর্যাদা। বিজেপি জানিয়েছে বাকি দের 'অনুপ্রবেশকারী' বলে তাড়ানো হবে বাংলাদেশে। এই নিয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করেছে বিজেপি নেতারা। বাংলার বিজেপি নেতারা ও জানিয়েছেন, বাংলা থেকে ঘাড় ধাক্কা দেবেন বাংলাদেশী দের। এবার বিজেপি নিজের জালে নিজেই জড়াল। বিপ্লব দেবের নামে প্রশ্ন উঠতেই পাল্টে দেওয়া হল তথ্য কিন্তু সেখানে ও ধরা পরে গেলেন বিজেপির এই দাপুটে নেতা।

 

 

পড়ুনঃ হেরে গেল NDA প্রার্থী। গোপনে শক্তি সঞ্চয় করছে বিরোধীরা। তবে কি মোদীর পরাজয় হল শুরু?

 

 

 

 

 

আমাদের খবর দেখতে যুক্ত থাকুন আমাদের ফেসবুক পেজে, ক্লিক করুন এখানে
আমাদের খবর Whatsapp এ পেতে, যুক্ত হোন আমাদের Whatsapp গ্রুপে, ক্লিক করুন এখানে