কেরল নিয়ে সিপিএম কে আক্রমণ করতে গিয়ে এবার মুখ পুড়ল আরএসএসের। জেনে নিন কেন?

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ কেরলের মানুষের পাশে রয়েছে আরএসএস, এবং সেখানে সিপিআই(এম) কোন কাজ ই করছে না এমন ভাবেই প্রচার শুরু হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়াতে। আর সেই প্রচার যে বুমেরাং হয়ে যাবে তা ভাবতে পারেন নি আরএসএস নেতৃত্বরা।

আরএসএস এর ফেসবুক পেজ থেকে কয়েক টি ছবি পোস্ট করা হয়। সেখানে দাবি করা হয় যে আরএসএস কেরলে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে। এবং এই ছবি পোস্ট করার পরেই বিজেপি সমর্থকেরা দাবি তুলতে থাকেন যে বামেরা কাজ করছে না কিন্তু আরএসএস কেরলের মানুষের পাশে আছে। মুহূর্তের মধ্য ভাইরাল হয়ে যায় ছবি গুলি। কিন্তু বিবাধ বাঁধে পরে। ছবি গুলোতে দেখা যাচ্ছে, আরএসএস কর্মীরা হাফ প্যান্ট পরে আছেন। কিন্তু কয়েক বছর আগেই আরএসএস কর্মী দের ফুল প্যান্ট পরার নির্দেশিকা দিয়েছে। আর এতেই শুরু হয় সন্দেহ।

দেখুন পুরনো ছবি,

 

 

 

 
Looks like Kerela couldn't kill all of those RSS Terrorists. Few of them are still alive and are looting the poor floodstruck Kerelaites.

Where the hell is PFI, shouldn't they be saving these 100% literate civilians from these chaddi clad barbarians? pic.twitter.com/xPYqVr1Qht

— Biswajit Roy (@biswajitroy2009) August 12, 2018

 

 


আর এই সন্দেহ নিবারণ করতে গিয়ে দেখা যায় পুরানো ছবি। কেঁচো খুঁড়তেই বেড়িয়ে আসে কেউটে। যে ছবি গুলো আরএসএস এর পক্ষ থেকে প্রচার করা হচ্ছে, সেগুলো একটাও এই বছরের নয়। গুজরাটের পুরনো ছবি কে হাতিয়ার করে চালানো হচ্ছে প্রচার।

শুধু এক জন নয়, অনেক নেতারাই এই ছবি নিয়ে প্রচারে নেমেছেন। তার মধ্যে আছেন বিজেপি নেতা সিটি রবি। তিনি আরও এগিয়ে এই পুরনো ছবি টুইট করে জানিয়েছেন, "জাতীয়তাবাদের এই মানবিক প্রচেষ্টাগুলি পেড মিডিয়া দ্বারা প্রদর্শিত হবে না।" আর এই সব প্রচার ই এখন আরএসএস কে হাসির পাত্র করে তুলেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

সিটি রবির টুইট

 

 

 

 

 

 

 
Blood Thirsty Commies murdered numerous @RSSorg Karyakartas in Kerala.

But when "God's Own Country" crumbled due to severe floods it is the same RSS that saved people & provided them with relief.

This Humanitarian efforts by Nationalists will not be showcased by the Paid Media. pic.twitter.com/IY8iudPEkC

— C.T.Ravi (@CTRavi_BJP) August 13, 2018

 

 


প্রঙ্গত, কেরলের সিপিআই(এম) এর মুখপত্র "দেশাভিমানী" পত্রিকার সম্পাদক তাঁর মেয়ের বিয়ের আশীর্বাদ স্থগিত রেখে পুরো টাকা মুখ্যমন্ত্রীর দারিদ্র্য ত্রাণ তহবিলে দান করেছেন। যার ফলে কেরলের মানুষের ও সমর্থন পেয়েছে বামেরা।

তবে এবার সুপরিকল্পিতি ভাবে বামেদের ফাঁসাতে দিয়ে এখন দেশের মানুষের সামনে আরএসএস এর মুখ পুড়ল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।