"আমার স্ত্রী-মেয়ের কাছে হার্দিক-লোকেশকে দেখতে চাই না" হরভজন সিং।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ‘কপি উইথ করন'এ মহিলাদের নিয়ে অশালীন ও অপমানজনক মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে দুই ব্যাটসম্যানকে। এবার হার্দিক-লোকেশকে নিয়ে মুখ খুললেন হরভজন সিং।

হরভজন সিং সাংবাদিক দের জানান, ‘‘আমার স্ত্রী ও কন্যা যদি আমার সঙ্গে ট্র্যাভেল করে তা হলে টিম বাসে এই দু'জন থাকলে আমি সেখানে উঠব না। ওরা কী ভাববে? ওরা মেয়েদের একটি মাত্র দিক থেকে দেখে যেটা সঠিক নয়।'' তিনি এও বলেন, "আমি বন্ধুদের সঙ্গেও এই সব নিয়ে আলোচনা করি না আর ওরা সেটা গন মাধ্যমে বলে দিল। এখন মানুষ ভাববে হরভজনও এরকম। অনিল কুম্বলে এমন ছিল বা সচিন তেন্ডুলকরও এমন ছিল। কতদিন হল পাণ্ড্যে দলে এসেছে যে এ ভাবে ভারতীয় দলের সংস্কৃতি নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে।"




কি হয়েছিল ‘কপি উইথ করন' এ যার জন্য এত সমালোচনায় পড়তে হল দুই ব্যাটসম্যানকে? এই ‘কপি উইথ করন' এর অনুষ্ঠানে হার্দিক পাণ্ড্যে ও লোকেশ রাহুল কে কয়েকটি প্রশ্ন করা হয়, যেখানে মহিলাদের নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করেন হার্দিক।

এই অনুষ্ঠানে, হার্দিক জানান যে তিনি মহিলাদের কেমন ভাবে দেখেন। যেখানে হার্দিক জানান, হার্দিকের পরিবার সেক্স এর মত বিষয় কে অত্যন্ত সাধারণ ভাবে নেন। তিনি তার ব্যক্তিগত জীবনের ঘটনা তার পরিবার কে ও বলেন।  তিনি আরও বলেন, কোন অনুষ্ঠানে গেলে কোন কোন মহিলার সঙ্গে তার সম্পর্ক আছে এই নিয়ে তার বাবা তাকে জিজ্ঞেস করলে, সে সেখানে সঠিক ভাবে একাধিক মহিলা কে দেখিয়ে দেন। এর জন্য তার বাবা গর্বিত ও হন।




এখানেই শেষ নয়। চিয়ার লিডার দের সঙ্গে ও হার্দিকের সম্পর্ক আছে বলে কথা প্রসঙ্গে উঠে আসে। করন প্রশ্ন করেন, মহিলাদের কোন বিষয় টি আগে তারা দেখেন। রাহুল প্রশ্নের উত্তরে মেয়েদের হাসি বললেও, হার্দিক মহিলাদের 'শারীরিক কাঠামো এবং চলাফেরা দেখেন' বলে জানান যা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। যদিও তারা এই নিয়ে ক্ষমা চাইলেও সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে দুই ব্যাটসম্যানকে। নির্বাসিত হয়েছেন হার্দিক পাণ্ড্যে ও লোকেশ রাহুল। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মাঝেই তাঁদের ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে দেশে।