ছাত্র খুনের ঘটনায় এবার চাপের মুখে, TMCP জেলা সভাপতিকে বহিষ্কার করল পার্থ।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ কোচবিহারে গোষ্ঠীদ্বন্ধে ছাত্রের মৃত্যুতে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হল তৃণমূলের পক্ষ থেকে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কোচবিহার জেলা কমিটিকে ভেঙে দেবার পাশাপাশি বহিষ্কার করা হল সংগঠনের জেলার সভাপতি সাবির সাহা চৌধুরীকে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এই কথা জানান ও বলেন দলে কোনোরকম বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবেনা।



জানা যাচ্ছে, গত ৪ ই অক্টোবর বৃহস্পতিবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এর তোলাবাজি কে কেন্দ্র করে দুটি গোষ্ঠীর লড়াইতে রক্তাক্ত হয়ে ওঠে কোচবিহার দিনহাটা কলেজ। তোলা কার কাছে থাকবে এই নিয়ে প্রথমে বচসা তার পর তা হাতাহাতি তে পৌছায়। এই হামলায় গুরুতর ভাবে আহত হয় কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কর্মী নিতাই দাস। ২দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে হার মানে সে, শনিবার মৃত্যু হয় তার।

এ ঘটনায় পুলিশ পাঁচ জন কে গ্রেপ্তার করেছিল। প্রথম থেকেই অভিযোগ ছিল জেলা টিএমসিপি সভাপতি সাবির সাহা চৌধুরীর বিরুদ্ধেও। যদিও তাকে বাঁচাতে কম চেষ্টা করেননি দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ। অভিযোগ উঠলেই যে কেউ অপরাধী হয়ে যায়না একথাও শোনা গিয়েছিল তাঁর মুখে। কিন্তু শেষরক্ষা হলনা। এদিন সাবিরকে সভাপতি পদ থেকে অপসারণের পাশাপাশি সংগঠন থেকেও বহিষ্কার করা হল।



এই ঘটনার ধিক্কার জানিয়েছে, ভারতের ছাত্র ফেডারেশন কোচবিহার জেলা কমিটি। এই ঘটনার বিরোধিতা করে, ছাত্রের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে, নিতাই দাস মৃত্যুর বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছে তারা, এবং অবিলম্বে দোষী দের শাস্তির দাবি তুলেছেন তারা। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে নিতাইয়ের পরিচিত মহলে। ১৮ বছর বয়েসি নিতাই দাসের মৃত্যু তার নিজের দলের কর্মী দের হাতেই হওয়াতে ক্ষোভে ফুঁসছে তার পরিবার।
.