এক সময় প্রিয় 'জল' শোভন কে এবার সত্যি জলে বিসর্জন দিলেন মমতা? পদ ছাড়বেন কালই?

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ অনেক দিন ধরেই দলে তাঁর অবস্থান ভালো না। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দূরত্ব ও বেড়েছে তাঁর। কিন্তু এমন টা হবে ভাবেন নি কেউ ই। মমতার সঙ্গে এত তাই ঘনিষ্ঠ ছিলেন শোভন যে, কয়েকবছর আগে সুইমিং পুলের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তৃণমূল-নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জলে ফেলে দিয়েছিলেন কলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। সে ছিল নিছক রসিকতা! সেই সময় 'জল শোভন' বলে ব্যাঙ্গ করেছিল অনেকেই শোভন বাবু কে। কিন্তু এবার বেজায় ক্রুদ্ধ হয়ে পদ থেকে ই শোভন ঝেড়ে ফেললেন মমতা।




২০১০ সালে কলকাতার মেয়র পদে বসেন শোভন। কিন্তু বৈশাখীর সঙ্গে 'প্রেমে'র সম্পর্ক মিডিয়ার সামনে আসতে এবং স্ত্রী রত্নার সঙ্গে তিক্ততা বাড়াতে শোভনের ওপর প্রবল ক্রুদ্ধ হন মমতা। এবার সেই ভুলের ই খেসারত দিতে হল শোভন কে। জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবার দমকল এবং আবাসন মন্ত্রী হিসেবে শোভন পদত্যাগ পত্র দিয়ে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ সচিব গৌতম সান্যালকে৷ তবে এখানেই শেষ নয়, সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে আগামী কাল নিজে মেয়র পদ ও ছাড়তে চলেছেন তিনি। তবে এই মেয়র পদ ছাড়া নিয়ে মুখ খোলেন নি শোভন বাবু।




মাস কয়েক আগে, বিজেপি সভাপতি শোভন প্রসঙ্গে জানান বিজেপিতে 'নোংরা' শোভন বেমানান। তবে এখন কোন পথে হাঁটবেন শোভন? রাজনৈতিক ভাবে সন্ন্যাস নেবেন নাকি অন্য কোন রাজনৈতিক দলে যাবেন এই নিয়ে শুরু হচ্ছে জল্পনা। তবে এই মুহূর্তে নারদ ঘুষ কাণ্ডে নাম রয়েছে শোভনের, তাই শোভন বাবু তৃণমূলের পাশে না থাকলে তোয়ালের আড়াল থেকে বেড়িয়ে আসতে পারে অনেক অজানা তথ্য, যা হয়ত তৃণমূলের কাছে শোভনীয় হবে না, এমন টাই মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।