টানা বৃষ্টির ফলে একপ্রকার বন্যা উত্তরবঙ্গে।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ দক্ষিণ বঙ্গ জলের অপেক্ষায় চাতক পাখির মতো আছে। ঠিক তখনই ভাসছে উত্তরবঙ্গ। ফুঁসছে তিস্তা। এটাই নয়  জারি হল লাল সতর্কতা। তিস্তার অসংরক্ষিত এলাকায় লাল সতর্কতা জারি করা হল। সংরক্ষিত এলাকায় জারি করা হয়েছে হলুদ অ্যালার্ট। একইসঙ্গে,  জলঢাকা অসংরক্ষিত এলাকাতেও হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

 সূত্রে খবর , তিস্তা ব্যারেজ থেকে আজ সকালে ৩৫৮৬.৯০ কিউমেক, জল ছাড়া হয়েছে। এরফলে জলস্তর বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বৃষ্টি হয়েছে উত্তরের জেলাগুলিতে। অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি রয়েছে। ফলে পরিস্থিতি আরও বাজে হতে চলেছে বলে আশঙ্কা। অনেক জমি ডুবে গিয়েছে। ধান বীজ জলের তলায় এখনো।

 

আবহাওয়া অফিস তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে -

১) জলপাইগুড়ি - ১৪০ মিলিমিটার।

২) আলিপুরদুয়ার - ১৭.৪০ মিলিমিটার।

৩) কোচবিহার - ৮.৭০ মিলিমিটার

৪) শিলিগুড়ি - ১৪৭.৪০ মিলিমিটার

৫) ময়নাগুড়ি - ১১২.০০ মিলিমিটার

এই অবিরাম বৃষ্টি হচ্ছে।তার জন্য বৃষ্টিতে মেরামত করা যায়নি নদীবাঁধ। আজ জলের গতি আরও বেড়েছে। নদী জলে ভেসে গিয়েছে পানীয় জলের কুয়ো। পানীয় জলের সংকট দেখা দিয়েছে এলাকায়। এখনও বৃষ্টি হয়ে চলেছে। রাত থেকে ফের বৃষ্টির কারণে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে অনেক জায়গা।

বর্তমানে পরিস্থিতি খুব প্রতিকূল। এবং এরাজ্যে থেকে সিকিম যাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে গেছে। ধস শুরু হয়েছে।