বাম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তীর প্রশ্নের উত্তর কার্যত দিতে পারলেন না মুখ্যমন্ত্রী।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ পশ্চিমবঙ্গে বামেরা লোকসভায় একটিও আসন না পেলেও বিভিন্ন ব্যাপারে তৃণমূলকে ছেড়ে কথা বলছে না বামেরা।এবার বিধানসভায় বাম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তীর প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলেন না মুখ্যমন্ত্রী।হুগলীর সিঙ্গুর রাজ্যে রাজনীতিতে এক পুরোনো নাম কিন্তু বর্তমানে সিঙ্গুর বিধানসভায় আলোচিত।সিঙ্গুর নিয়েই বিধান সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন সরকার সিঙ্গুরের চাষিদের সব রকম সাহায্য করেছে। কিন্তু তবুও কেন চাষের পরিমাণ কমেছে, আমি কী করে বলব?”।

২০১৬ সালে ১৪ প্রায় ১০০০ একর জমি আবার আনুষ্ঠানিকভাবে স্থানীয় কৃষকদের হাতে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জমি চাষিদের হাতে তুলে দেওয়ার সময়ে  সরকারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, ৯৫৫ একর জমি চাষযোগ্য। বর্তমানে দেখা গিয়েছে, মাত্র ২৬০ একর জমিতে চাষ হয়েছে।কেন দুই তৃতীয়াংশ জমিতে কাজ হচ্ছে না? এদিন বিধানসভায় সেই প্রশ্ন করেন সুজন চক্রবর্তী।

এই প্রশ্নের মুখ্যমন্ত্রী তাঁর উত্তরে বলেন, “২০১৮-১৯ আর্থিক বছরে সিঙ্গুরে ২৬০ একর জমিতে চাষ হয়েছে।সরকার কৃষক দের সবরকম সাহায্য করার পরেও চাষের পরিমাণ কেন কমছে আমি কী করে বলব?” তিনি দাবি করেন, মাটি পরীক্ষা করে সার ও বীজ মিলিয়ে ১০ হাজার টাকা কৃষকদের দেওয়া হয়েছে।বিভিন্ন প্রশ্নে সরগরম হয় বিধানসভা।আর বাম বিধায়কের সিঙ্গুর প্রশ্নে সেরকম কিছু বলতে পারেন নি মুখ্যমন্ত্রী।