রাজ্যের মন্ত্রী নিজেই ভাঙছেন আইন। প্লাষ্টিক বিতর্কে নাম জড়াল ফিরহাদ হাকিমের।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ অনেকদিন ধরেই প্লাস্টিক ব্যাগের ব্যবহার করার কথা বলা হচ্ছে। 2016 সাল থেকে প্লাস্টিক বর্জ্য পদার্থ নিষিদ্ধ আইন চলে আসছে। বাজারে মেয়েদের হাতে প্লাস্টিক ব্যাগ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে তুমুল ঝড় উঠেছে। বুধবার চেতলার সিআইটি বাজারে মুখ্যমন্ত্রী তার লোকেদের পাশে নিয়ে যেভাবে প্লাস্টিক ব্যাগে করে বাজার করেছেন তা নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।যে মেয়রের ছবিটি প্রকাশ্যে এসেছে তার হাতে যে প্লাস্টিক ব্যাগ টি ব্যবহার করতে দেখা গেছে সেটি মূলত 50 মাইক্রন এর নিচে হবে এবং এটি ব্যবহার করে তিনি আইন ভঙ্গ করেছেন।2016 সালে এই পঞ্চাশ মাইক্রন নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার যেমন নিষিদ্ধ হয়েছে তার পাশাপাশি উৎপাদক, ব্যবহারকারী, পুরসভা, পঞ্চায়েত ও দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া হয়েছে। পর্ষদের নির্দেশ100 মাইক্রোন এর নিচে প্লাস্টিক ক্যারি ব্যাগ ব্যবহার করা যাবে না তাও ওই মেয়র কিভাবে তা ব্যবহার করতে পারেন।

পরিবেশ মন্ত্রী সুভাষ দত্ত জানান যে বুধবার দিন কলকাতার এক বাজারে মন্ত্রী তথা মেয়র যে প্লাস্টিক ব্যাগ টি ব্যবহার করেছেন তা দেখে মনে হচ্ছে যে 50 মাইক্রন এর কম তাই যদি তিনি এই ব্যাগ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে তিনি দেশের আইন ভঙ্গ করছেন তাও আবার মুখ্যমন্ত্রীর সামনে। আইন অনুসারে যে ওই ব্যাগটি তে বাজার করছে তার 100 টাকা জরিমানা হওয়া উচিত এবং যে ওই ব্যাগটি বিক্রি করছে তার 200 টাকা জরিমানা হওয়া উচিত।

বুধবার সন্ধ্যেবেলায় চেতলার বাজারে যান মুখ্যমন্ত্রী সহ মেয়র ফিরহাদ হাকিম। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী নিজের জন্য বাজার করেন এবং সেই দোকানটিতে অনেক প্লাস্টিকে ছিল নানা রকমের সবজি এবং দোকানটিতে ওই প্লাস্টিকে ঝুলছিল বেবি কন। মুখ্যমন্ত্রীর পছন্দ সহ মেয়র কিনলেন বেগুন পটল লংকা বেবি কন এছাড়া আরো অনেক জিনিস।প্লাস্টিক নিয়ে এর আগেও নানা সমস্যা দেখা গেল রাজ্য সরকার মাঝে মাঝে নানা রকম অভিযান চালিয়ে যান 100 মাইক্রোন এর নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করার জন্য।