বিজেপির উপর থেকে কি সমর্থন তুলে নিতে চলেছেন গাভী কল্যাণ সমিতি ?

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ বিজেপি যতই বলুক তাদের পাশে মানুষ আছে কিন্তু বাস্তবে তার উল্টোটাই চোখে চোখে পড়ছে।এবার বিজেপির পাশ থেকে সরে দাঁড়াল রাজ্য গাভী কল্যাণ সমিতি।রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্য ঘোষ এন্ড গাভী কল্যাণ সমিতির রাজ্য সভাপতি বাপ্পাদিত্য ঘোষ জানিয়েছেন,আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁদের দাবিদাওয়া নিয়ে বিজেপি লিখিত প্রতিশ্রুতি না দিলে তাঁরা নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী দেবে৷

তিনি আরো বলেন,গোটা রাজ্যে তাঁদের প্রায় ৩৮ শতাংশ ভোটার রয়েছে।এতদিন ধরে তাঁরা শুধু দাবিই জানিয়ে গিয়েছেন।কিন্তু কোনেও সুরাহা হয়নি। জলের দাম বেশি কিন্তু দুধের দাম কম–এই অবস্থার পরিবর্তন চান তাঁরা।তাদের দাবি গুলো হলো :- গোপালকদের ৪০ শতাংশ সরকারী ভর্তুকি প্রদান করা,গো খাদ্যের ওপর ৪০ শতাংশ ভর্তুকি প্রদান করা,সরকারের পক্ষ থেকে ফ্যাট মেশিন সরবরাহ করা, ব্লকে ব্লকে সরকারী দুধের সেন্টার খোলা,গোপালকদের ও গরু,মোষের জন্য বীমার সুবিধা প্রদান করা প্রভৃতি।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে রাজ্যের ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক নেতা-মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তাঁরা।কিন্তু কোনও লাভ হয়নি।সম্প্রতি এই দাবিগুলি পূরণের লক্ষ্যে বর্ধমানে কার্জন গেটের সামনে আমরণ অনশনে বসেন বাপ্পাদিত্য ঘোষ।তিনদিন অনশন চলার পর খোদ বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গী অনশন মঞ্চে এসে তাঁর অনশন ভঙ্গ করেন।একইসঙ্গে তাঁদের দাবিপূরণের আশ্বাসও দিয়ে যান।কিন্তু তারপর তাঁদের দাবি নিয়ে কোনো উচ্চবাচ্য করেনি বিজেপি।বাপ্পাদিত্যবাবু জানিয়েছেন, কিছুদিন আগে খোদ বিজেপির কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ও বাপ্পাদিত্য ঘোষের বাড়িতে আসেন, একান্তে বৈঠক করেন।তিনি জানিয়েছেন, বিজেপির এই মিথ্যা প্রতিশ্রুতির জন্যই তাঁরা বিজেপির প্রতি সমর্থনের পথ থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।তাহলে কি এবার ভাঙন ধরতে চলেছে বিজেপি তে?এবার কি সত্যিই বিজেপির উপর থেকে সমর্থন তুলে নিতে চলেছেন গাভী কল্যাণ সমিতি,উঠছে প্রশ্ন?