দুটি বেডে ছয় জন, মৃত সদ্যোজাত শিশু।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ জলপাইগুড়ির মাদার এন্ড চাইল্ড হাবে গতকাল শনিবার মৃত্যু হয় এক সদ্যোজাত শিশু কন্যার। অভিযোগ কর্তব্যে গাফিলতি। অভিযোগ তুলেছে শিশুর পরিবার। ছয় জনকে একসাথে দুটি বেডে রাখার ফলেই মৃত্যু হয়েছে ওই শিশুর এমনই অভিযোগ তুলেছে তার পরিবার।

দুটি বেড পাশাপাশি জোড়া দিয়ে সেখানে ৩ জন মা আর তিন জন সদ্যোজাত শিশুকে রাখা হয়েছিল এমনই অভিযোগ উঠেছে। এই জন্যই চাপাচাপিতে মৃত্যু হয় ওই সদ্যোজাত কন্যা সন্তানের। জলপাইগুড়ির মুখ্য আধিকারিক জগন্নাথ সরকার এবং কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে শিশুটির পরিবার।

জলপাইগুড়ির শিল্পসমিতির পাড়ার বাসিন্দা সুমন দাস ও তাঁর স্ত্রী দেবযানী দাস। দেবযানী ১৭ই এপ্রিল জলপাইগুড়ির মাদার এন্ড চাইল্ড হাবে ভর্তি হন। ওই দিনই সিজার করে তার কন্যা সন্তান হয়।শুক্রবার দেবযানী ও তাঁর সন্তানকে অন্য বেডে স্থানান্তর করা হয়। সেই বেডে আগে থেকেই দুজন প্রসূতি ও তাদের দুই সন্তান ছিল। দেবযানী ও সুমনের অভিযোগ, দুটি বেডে তিনজন প্রসূতি ও তিনটি শিশুকে রাখায় চাপ লেগেই তাঁদের তিনদিনের কন্যা সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার ভোরে শিশুটির মৃত্যু হয়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।
১০দিক২৪ ব্যুরোঃ জলপাইগুড়ির মাদার এন্ড চাইল্ড হাবে গতকাল শনিবার মৃত্যু হয় এক সদ্যোজাত শিশু কন্যার। অভিযোগ কর্তব্যে গাফিলতি। অভিযোগ তুলেছে শিশুর পরিবার। ছয় জনকে একসাথে দুটি বেডে রাখার ফলেই মৃত্যু হয়েছে ওই শিশুর এমনই অভিযোগ তুলেছে তার পরিবার।

দুটি বেড পাশাপাশি জোড়া দিয়ে সেখানে ৩ জন মা আর তিন জন সদ্যোজাত শিশুকে রাখা হয়েছিল এমনই অভিযোগ উঠেছে। এই জন্যই চাপাচাপিতে মৃত্যু হয় ওই সদ্যোজাত কন্যা সন্তানের। জলপাইগুড়ির মুখ্য আধিকারিক জগন্নাথ সরকার এবং কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে শিশুটির পরিবার।

জলপাইগুড়ির শিল্পসমিতির পাড়ার বাসিন্দা সুমন দাস ও তাঁর স্ত্রী দেবযানী দাস। দেবযানী ১৭ই এপ্রিল জলপাইগুড়ির মাদার এন্ড চাইল্ড হাবে ভর্তি হন। ওই দিনই সিজার করে তার কন্যা সন্তান হয়।শুক্রবার দেবযানী ও তাঁর সন্তানকে অন্য বেডে স্থানান্তর করা হয়। সেই বেডে আগে থেকেই দুজন প্রসূতি ও তাদের দুই সন্তান ছিল। দেবযানী ও সুমনের অভিযোগ, দুটি বেডে তিনজন প্রসূতি ও তিনটি শিশুকে রাখায় চাপ লেগেই তাঁদের তিনদিনের কন্যা সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার ভোরে শিশুটির মৃত্যু হয়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।