বেগুসরাইয়ে জোর কদমে প্রচার চলছে সিপিআই প্রার্থী কানহাইয়া কুমারের।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ না আছে বন্দুক না আছে গুলি।আছে শুধু কবিতা আর গান আর স্লোগান।সকাল থেকে রাত বেগুসরাইয়ে এখন কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে কানহাইয়ার সুর। বিহারের বুকে শেষ কবে কোন বামপ্রার্থী প্রচারে এমন ঝড় তুলেছেন, তা বলা মুশকিল।তবে জোর কদমে প্রচার হচ্চে সিপিআই প্রার্থী কানহাইয়া কুমার এর সমর্থনে।তবে বিহট গ্রামের আজাদ ক্যান্টিন থেকেই যেন আজাদির পরিকল্পনা সাজিয়ে ফেলেছেন বামপ্রার্থী কানহাইয়া কুমার।কানহাইয়ার কথায়"লড়াইটা কঠিন হলেও মানুষ তার পাশে আছে"।

গ্রামের নাম বিহট।টালির চালের এই উঠোন থেকে বিপ্লবের পাঠ শুরু হয়েছিলো।দিল্লির জহওরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আবার মাটির টানে ফিরে আসা। বাবা-কাকাদের বাম মানসিকতায় গড়ে ওঠা সমাজ বদলের স্বপ্ন নিয়ে।তাই বিহার থেকে তিহারের রচনায় কানহাইয়ার কলমে পরতে পরতে গ্রামীণ রাজনীতির কথা।ভিটেতে ফিরে দেশ বদলের স্বপ্ন, বত্রিশের তুর্কীর চোখে।তাঁর হয়ে প্রচারে এসেছেন সমাজকর্মী তিস্তা শীতলওয়াড়।

ভোট তাঁর কাছে সমাজ ব্যবস্থার বদলের মাপকাঠি মাত্র।সেই দাড়িপাল্লায় হার-জিতের অর্থ নেই।কিন্তু কী ভাবছেন কানহাইয়া?বেগুসরাইয়ের ভোট এবার সব আলোচনায়।সামনে হেভিওয়েট গিরিরাজ সিং।যিনি আবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বটে।বেগুসরাই তো বটেই,হাতের তালুর মতো বিহারকে চেনেন।গিরিরাজ নন, লড়াইটা কঠিন, মানছেন কানহাইয়া।এখন এটাই দেখার কে শেষ পর্যন্ত বাজিমাত করেন।