মালদা হতে চলেছে বিরোধী শূন্য, জানালেন শুভেন্দু।

আজ মালদায়, মালদা কলেজ অডিটোরিয়ামে তৃণমূলের নব নির্বাচিত দলীয় পঞ্চায়েত প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকে বসেন শুভেন্দু অধিকারী। এই সভা শেষ করে বেরোবার সময় তিনি সংবাদ মাধ্যমে জানান আগামীদিনে মালদার সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতি তৃণমূলের দখলে আসবে। অনেক দলের জয়ি প্রতিনিধিরা তৃণমূলে আসতে ইচ্ছুক।  প্রসঙ্গত এই মুহূর্তে মালদায় তৃণমূল কংগ্রেস একক ভাবে ৭০ শতাংশ পঞ্চায়েত জয় করেছে, বাকি ২০ শতাংশ সিট এখনও ত্রিশঙ্কু অবস্থায় রয়েছে। এমন এক পরিস্থিতি তে, শুভেন্দু বাবুর এই বক্তব্য কে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে রাজনৈতিক মহল। শুভেন্দু বাবুর মতে মালদা পঞ্চায়েতে বিরোধী শূন্য হতে চলেছে। যে সিট গুলিতে জেতা যায়নি সেগুলিও এবার তৃণমূলের দখলে আসবে। তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়বে বিরোধীরা।

শুভেন্দুর এই মন্তব্যের তীব্র সমালোচনায় সরব সিপিএম সাংসদ মহম্মদ সেলিম তিনি জানান শুভেন্দু বাবু নিজে তৃণমূল না বিজেপির হয়ে কাজ করছেন সেটাই এখনও পরিস্কার নয়। চিট ফান্ড কাণ্ড থেকে বাঁচতে তিনি বিজেপির শরণাপন্ন হয়েছিলেন, আগামী দিনে তিনি নিজে কোন দিকে থাকবেন সেটা তার আগে ঠিক করার প্রয়োজন। তিনি আরও জানান তৃণমূলের উচিৎ পঞ্চায়েত নির্বাচনে নিজের দলের হাতে খুন হয়ে যাওয়া তৃণমূল পরিবার গুলির কাছে গিয়ে ক্ষমা চাওয়া।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান গুন্ডা এবং প্রশাসন দিয়ে মানুষের অধিকার ছিনিয়ে নেওয়া যাবে না।