প্রতিবন্ধী মেয়ের কে সাহস জোগাতে, মেয়ের সঙ্গে মাধ্যমিক দিল বাবা

পলতায় শান্তিনগরের বাসিন্দা জিতেন্দ্র। পরিবারে আছেন তার দুই প্রস্তিবন্ধী মেয়ে এবং তার স্ত্রী। অর্থনৈতিক কারণে একটা সময় মাধ্যমিকের গণ্ডি পেরানোর সুযোগ হয়নি জিতেন্দ্রর।

পড়ুনঃ এবারেও কি কলেজে ভর্তি নিয়ে দুর্নীতির শিকার হবে পড়ুয়ারা

 

 


তার মেয়ে রচিতা দেবনাথ ছিলেন এবারের মধ্যমিক পরীক্ষার্থী। মেয়ে জন্ম থেকেই প্রতিবন্দী, ছোট থেকেই সে মূক ও বধির। এবারে পলতা গার্লস হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেন সে। আর মেয়ে কে উৎসাহ জোগাতে মেয়ের সঙ্গে এবারে মাধ্যমিক দেন বাবা ও। এই পরীক্ষায় বসতে গিয়ে নিজেই ছেড়ে দেন বেসরকারি চাকরি।

 

 

পড়ুনঃ বাড়িতে বিদ্যুৎ ছিলোনা শুধু স্বপ্ন ছিলো। তাতে ভর করেই নবম স্থানাধিকার নিশার।


তার পর মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলে দুজনেই পরীক্ষায় পাস করেন। মেয়ে রচিতা দেব নাথ প্রাপ্ত নং ৩৭৪, এবং বাবা জিতেন্দ্র পেয়েছেন ২০৬ নং। তাদের এই সাফল্যে বেজায় খুসি তাদের পরিবার। মেয়ের পাশে উৎসাহ জোগাতে তার বাবার এই পদক্ষেপে আপ্লুত তার মেয়ে ও। উচ্চ মাধ্যমিকে আরও ভালো ফল করাই এখন তাদের প্রধান লক্ষ।