টানা ৫০ দিন 'আনন্দভোজ' নিয়র মানুষের পাশে স্টুডেন্ট হেলথ হোম।

সাধারন মানুষের জন্য এই কাজ চালাচ্ছে লাল ঝান্ডা।

১০ দিক ২৪: সারা রাজ্যে কমিউনিটি কিচেন চলছে। হুগলিতে জুলাই মাসে শুরু হয়েছে স্টুডেন্ট হেলথ হোম উদ্দোগে ছাত্র ছাত্রীদের বিনামূল্যে খাবার দিচ্ছে। এর নাম 'আনন্দভোজ '। 

এই করোনা সময়ে হুগলীর নর্থ স্টুডেন্ট হেলথ হোম এর উদ্দোগে ১৮জুলাই ২০২০থেকে ছাত্র ছাত্রীদের জন্য বিনামূল্যে দুপুরে খাবার দিচ্ছে। এই কাজকে অনেকেই অভিনন্দন জানিয়েছেন। তাদের এই  কাজের নাম  দিয়েছে আনন্দভোজ। 

স্টুডেন্ট হোমের উদ্যোগে ৫০ দিন টানা চলছে এই কাজ। এক অভিভাবক বলেন, ' ভালো উদ্যোগ। হুগলিতে এক মাত্র এখানেই এই কাজ চলছে। 

বিভিন্ন শ্রমজীবী ক্যান্টিনে অল্প মূল্যে খাবার দেওয়ার কাজ চালু করেছে সিপিআইএম। 

এখনো পর্যন্ত কত গুলি শ্রমজীবী ক্যান্টিন চলছে জেনে নিন: 

১) যাদবপুর শ্রমজীবী ক্যান্টিন: যাদবপুর।
২) নেতাজি নগর কমিউনিটি কিচেন: নেতাজি নগর। 
৩) বরানগর শ্রমিজীবী ক্যান্টিন : বরানগর।
৪) রায়গঞ্জ শ্রমজীবী ক্যান্টিন: রায়গঞ্জ।
৫) লালমাটির রান্নাঘর:সোনামুখী।
৬) পোড়ামাটির রান্নাঘর:বিষ্ণুপুর। 
৭) বাঁকুড়ার রান্নাঘর:বাঁকুড়া। 
৮) বেহালা শ্রমজীবী ক্যান্টিন:বেহালা। 
৯) বালিগঞ্জ ১ শ্রমজীবী ক্যান্টিন : বালিগঞ্জ। 
১০) গরফা শ্রমজীবী ক্যান্টিন:গরফা। 
১১) দমদম নাগরিক হেঁসেল:দমদম। 
১২) মানিকতলা নাগরিক রান্নাঘর:মানিকতলা। 
১৩) বেলঘরিয়া বিশু দাস শ্রমজীবী ক্যান্টিন:বেলঘরিয়া। 
১৪) কালিয়াচক চিনাবাজার কমিউনিটি কিচেন: কালিয়াচক।
 ১৫) আনন্দভোজ:পিপুলপাতি , হুগলী। 
১৬) প্রিয় মান্না বস্তি শ্রমজীবী ক্যান্টিন : হওড়া। 

সাধারন মানুষের জন্য এই কাজ চালাচ্ছে লাল ঝান্ডা। এক নেতা জানান, মানুষের পাশে রয়েছি আমরা। বিজেপি, ও তৃণমূল মানুষের পাশে নেই । আমরা মানুষের পাশে আছি। তাই এই কমিউনিটি কিচেন করেছি।

স্টুডেন্ট হেলথ হোমের আনন্দভোজ কে  অনেকেই  সাহায্য করছেন।