প্লাজমা দিতে হসপিটালে সিপিএম নেতা

প্লাজমা ও রক্ত সবসময় জনতার পাশে আছেন বাম নেতারা।

১০ দিক ২৪: প্লাজমা দান করতে হাসপাতালে হাজির হলেন সিপিএম নেতা।ফের মানুষের পাশে বাম নেতা। তৃণমূল নেতাকে প্লাজমা দান করবে এই নিয়ে যান সিপিআইএম নেতা।  করোনা আক্রান্ত হন হাবড়ার পুরপ্রশাসক, তৃণমূলের নীলিমেশ দাস। ১২ সেপ্টেম্বর থেকে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। চিকিৎসকেরা প্লাজ়মা থেরাপি শুরু করেছেন।  সিপিআইএম নেতা হলেন ঋজিনন্দন বিশ্বাস। শেষমেশ ডাক্তাররা অবশ্য তার প্লাজমা ডাক্তাররা নেন নি।

ঋজিনন্দন নিজে বলেন, ‘‘বিমান বসুর বক্তব্যে একবার শুনেছিলাম, আগে আমরা মানুষ। তারপরে কমিউনিস্ট। আমরা নিশ্চয়ই তৃণমূলের সমালোচনা করব। মতপার্থক্য থাকবে। কিন্তু মানুষের জীবনের মূল্য আগে। বিরোধী দলের কারও বিপদে এগিয়ে যাওয়া যাবে না, এমন অন্ধত্ব আমাদের দলে নেই।’’ 

ঋজিনন্দনের প্লাজমা কেন নিলেন না চিকিৎসকেরা?হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেন, যেহেতু লালারস পরীক্ষায় করোনা ধরা পড়েনি, তাই তাঁর প্লাজ়মা করোনা রোগীকে দান করা যাবে না।

সিপিএমে নেতার বক্তব্য, ‘‘সরকারি নির্দেশিকায় আছে  র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে কেউ করোনা পজ়িটিভ হলে তাঁকে পজ়িটিভ রোগী হিসেবেই ধরা হবে। ফলে অদ্ভূত যুক্তিতে আমার প্লাজ়মা নেওয়া হল না।’’

স্থানীয় নেতা বলেন, আমরা মানুষের পাশে থাকি রাজনীতি না দেখে সবার পাশে সিপিএইএম। সবসময় আমরা আছি। 

প্লাজমা ও রক্ত সবসময় জনতার পাশে আছেন বাম নেতারা। ফের তা সামনে এলো