ভাঙতে হল কলেজ ইউনিট, তৈরি হল নতুন নিয়ম। তবুও নিয়ন্ত্রণহীন TMCP।


১০দিক২৪ ব্যুরোঃ বর্তমানে রাজ্যের কলেজ গুলিতে "অর্থ যার, শিক্ষা তার" এই নীতি মেনেই ভর্তি প্রক্রিয়া চলছে। যার পুরোভাগেই নেতৃত্ব দিচ্ছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। হাজার চেষ্টা করে থামান গেল না টাকা তোলা। ভর্তির সময় টাকা তোলার ঘটনা কে বন্ধ করতে না পেরে শেষে বিকল্প পথেই হাঁটতে হল তৃণমূল সরকার কে।

অর্থের ভিত্তিতে নয়, মেধার ভিত্তিতে ভর্তির জন্য এবার নতুন রাস্তা নিচ্ছে সরকার। আজ সাংবাদিক সম্মেলন করে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, এবার থেকে ভর্তির জন্য আর কলেজে যাওয়া লাগবে না, ভর্তির টাকা ও এবার থেকে জমা নেওয়া হবে ব্যাঙ্কে। TMCP-র টাকা তোলা থেকে ছাত্র দের বাঁচাতে পুরো ভর্তি পক্রিয়া কে অনলাইন করা হচ্ছে। এবার থেকে একেবারেই ক্লাস শুরুর দিনই যেতে হবে কলেজে, বাকি সব কাজই হবে অনাইনে।

জয়া দত্ত আরও জানান, গুরুদাস, বিদ্যাসাগর, সিটি, আনন্দমোহন কলেজগুলিতে টিএমসিপির ছাত্র ইউনিট ভেঙে দেওয়া হয়েছে৷ তার দাবি যারা একাজ করছে তারা সবাই প্রাক্তন নেতা। এভাবেই দায় এড়িয়ে যাবার চেষ্টা করেছেন তিনি।

তবে সরকারের এই পদক্ষেপে উঠেছে প্রশ্ন। কলেজে যাবার পর কতটা সুরক্ষিত থাকবে ছাত্র ছাত্রীরা? টাকা না দিলে হয়ত ক্লাস না করতে দিতে পারে ইউনিয়ন। এই নিয়ে অত্যন্ত ভিত ছাত্র দের পরিবার। আর এই ঘটনায় তীব্র নিন্দার মুকে পড়তে হচ্ছে তৃণমূল কে।  বিরোধীরা ব্যাঙ্গ করে বলেছে রক্তের স্বাধ পাওয়া বাঘ, আর টাকার গন্ধ পাওয়া TMCP র মধ্যে এখন কোন পার্থক্য থাকছে না।