তৃণমূলের হাতে তৃণমূল খুন। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতে এবার তীব্র অস্বস্তিতে তৃণমূল কংগ্রেস।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ এবার তৃণমূলের শিকার তৃণমূলই। এতদিন বিরোধীদের মারধোর বা খুনের অভিযোগ থাকত রাজ্যের শাষক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এবার দলেরই এক নেতাকে খুন হতে হল আরেক নেতার হাতে। এভাবে গোষ্ঠীদ্বন্ধ সামনে এসে পড়ায় তীব্র অস্বস্তিতে তৃণমূল কংগ্রেস।

প্রসঙ্গত গত ২৪শে মার্চ কালনা ১নং পঞ্চায়েত সমিতির সুলতানপুর পঞ্চায়েতের প্রধাণ ও তৃণমূল নেতা সুকুর আলী শেখ দুষ্কৃতীদের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে খুন হন। তাঁর সাথে থাকা বাপন শেখ নামক এক তৃণমূল কর্মীও গুলিবিদ্ধ হন। এই ঘটনায় পুলিশ ১৯জন কে গ্রেপ্তার করলেও, ৯০দিন পর যে চার্জশীট পেশ হয় তাতে অনেক শাষকদলের নেতার নাম বাদ পড়েছে বলে ক্ষোভ ছড়ায় মৃতের পরিবার ও স্থানীয় অঞ্চলে।

তবে মূল অভিযুক্ত তৃণমূলেরই আরেক নেতা শান্তি চাল দীর্ঘদিন ফেরার থাকার পর, গত বুধবার ১৫ই আগস্টের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসার সময় বুলবুলিতলা ফাঁড়ির পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন। ধৃতকে কালনা আদালতে তোলা হলে বিচারক ১৪দিনের জেল হেফাজত দেন।

অপর দিকে শান্তি চাল সহ সাদেক খান ও বাকী দোষীদের দ্রুত শাস্তির দাবীতে সরব হয়েছেন নিহত সুকুর আলী শেখের ভাই নাসির আলী শেখ। যদিও তৃণমূল এই ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। কালনার ১নং ব্লক সভাপতি তৃণমূল নেতা উমাশঙ্কর সিংহরায় বলেছেন 'আইন আইনের পথে চলবে।' তবে এই নিয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করতে ছাড়ছেননা কোনো বিরোধী দলই।

 

পড়ুনঃ মেয়ের বিয়ের আশীর্বাদ বন্ধ রেখে, CPI(M) নেতা, পুরো টাকা তুলে দিলেন কেরল ত্রাণ তহবিলে।

 

 

 

 

 

আমাদের খবর দেখতে যুক্ত থাকুন আমাদের ফেসবুক পেজে, ক্লিক করুন এখানে
আমাদের খবর Whatsapp এ পেতে, যুক্ত হোন আমাদের Whatsapp গ্রুপে, ক্লিক করুন এখানে