আজ বিশ্ব মানবতা দিবস, কিন্তু আজ মন ভালো নেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কেন? জেনেনিন।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ আজ বিশ্ব মানবতা দিবস। আর এই মানবতা দিবসের প্রাক্কালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহমর্মিতা প্রকাশ করলেন 'নিজভূমে পরবাসী' মানুষদের জন্য। অর্থাত অসমের নাগরিকপঞ্জী থেকে নাম বাদ যাওয়া ব্যক্তিদের জন্য।

প্রসঙ্গত ৩০শে জুলাই প্রকাশিত অসমের এই নাগরিকপঞ্জী তালিকা থেকে নাম বাদ গিয়েছে প্রায় ৪০লক্ষেরও বেশী মানুষের। এক মুহূর্তেই তাঁরা তাদের দেশ হারিয়েছেন। যা নিয়ে সমালোচনায় মুখর হয়েছে দেশের নানান মহল।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তখনই সরাসরি এই নাগরিকপঞ্জীর বিরোধীতা করেন। এর মাধ্যমে বিজেপি তার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। তিনি বলেছেন অসমে 'বাঙালী খেদাও' অভিযান চলছে।

 

 
Today is World Humanitarian Day. Respecting human rights is one of the basic tenets of our Constitution. On this day, my heart goes out to the 40 lakh people who have become refugees in their own country because of #NRCAssam.

— Mamata Banerjee (@MamataOfficial) August 19, 2018

 

 


মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নবান্নতে নাগরিকপঞ্জী নিয়ে ডাকা সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন "যে ৪০ লক্ষ মানুষের নাম নাগরিক পঞ্জির তালিকা থেকে বাদ গিয়েছে তার মধ্যে ৩৮ লক্ষ বাঙালি। এই ৩৮ লক্ষের মধ্যে ২৫ লক্ষ হিন্দু বাঙালি। বাকি ১৩ লক্ষ মুসলিম।" ওই তালিকায় থাকা নানান অসঙ্গতিও তুলে ধরেন তিনি। প্রামাণ্য নথি সহ তিনি দেখান ১৯৭১সালের আগে ভোটার তালিকায় নাম থাকা ব্যক্তির নামও চূড়ান্ত তালিকায় বাদ পড়েছে।

আজ তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ট্যুইট করেন "আজ বিশ্ব মানবতা দিবস। আমাদের সংবিধানের মুখ্য মতবাদ হচ্ছে মানিবাধিকারকে গুরুত্ব দেওয়া। এই দিনে অসমের ওই ৪০ লক্ষ মানুষের জন্য আমার হৃদয় কাঁদছে। কারণ নাগরিক পঞ্জীর তালিকার জন্য তাঁরা নিজের দেশের উদ্বাস্তু হয়ে গিয়েছে।"