Homeরাজ্যএবার ঘুষ নিয়ে ছাত্র নয়, তৃণমূলের চাপে নিয়ম ভেঙে সাংসদকেই ভর্তি নিল কলেজ।

এবার ঘুষ নিয়ে ছাত্র নয়, তৃণমূলের চাপে নিয়ম ভেঙে সাংসদকেই ভর্তি নিল কলেজ।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ফের শিক্ষাঙ্গনে তৃণমূলী হস্তক্ষেপের অভিযোগ উঠল। এবার প্রভাব খাটিয়ে নিয়মাবলীর বিরুদ্ধে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবার অভিযোগ আরামবাগের তৃণমূলী সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের নামে।

আগে নারদা কেসে টাকা নেবার জন্য অভিযুক্ত ছিলেন এই অপরূপা পোদ্দার। এবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়েও বেনিয়ম তাঁর ভর্তি হওয়াকে কেন্দ্র করে। জানা গিয়েছে ২০১৬-১৮ শিক্ষাবর্ষে এলএলএম কোর্সে ভর্তি হয়েছিলেন অপরূপা। নিয়মানুসারে ৭০% উপস্থিতি না থাকলে কোনো ছাত্র বা ছাত্রীকে ডিসকলিজিয়েট ঘোষনা করা হয়। ও পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়না।




ওই শিক্ষাবর্ষে অপরূপা পোদ্দার একটি ক্লাসও না করায় তাকেও পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়নি। এরপরই রিঅ্যাডমিশনের জন্য আবেদন করেন তিনি। কিন্তু এলএলএম এর নিয়মে ডিসকলিজিয়েট হওয়া ছাত্রছাত্রী রিঅ্যাডমিশন করতে চাইলে তাকে ফের অ্যাডমিশন টেস্টে পাশ করতে হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে তা হয়নি। বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় এটিকে স্পেশ্যাল কেস হিসেবে গণ্য করে ও নিয়মবিরুদ্ধ ভাবে হুগলী মহসীন কলেজে একটি সিট বাড়িয়ে তাকে ভর্তি নিয়ে নেয়।

এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন পুর্ব বর্ধমান জেলার বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই। জেলা এসএফআই সম্পাদক অনির্বান রায়চৌধুরী বলেছেন “অপরূপা পোদ্দার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে LLB পড়ার সময় তাঁকে RA করা হয়। পরে তাঁর RA বাতিল করে তাঁকে পাস করানো হয়েছিল। বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের নিয়ম অনুযায়ী কোনও ছাত্র বা ছাত্রীর কোনও শিক্ষাবর্ষে যদি ৭০ শতাংশর কম হাজিরা থাকে, তাহলে তাঁকে ডিসকলেজিয়েট করা হয়। অপরূপা পোদ্দার একদিনও ক্লাস করেননি। তাই তাঁকে ডিসকলেজিয়েট করা হয়। সেইসময় ল’ বিভাগে যিনি হেড অফ দা ডিপার্টমেন্ট ছিলেন তাঁর উপর চাপ সৃষ্টি করা হয়। বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী কোনও ছাত্র বা ছাত্রীকে যদি প্রথম বর্ষে ডিসকলেজিয়েট করা হয়, তাহলে তাঁকে নতুন করে অ্যাডমিশন টেস্ট দিয়ে পাশ করতে হবে। এক্ষেত্রে সেই নিয়ম মানা হয়নি। দেখা গেল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল স্পেশাল পারমিশনে অপরূপা পোদ্দারকে ফের ভরতি নিয়েছে।”




যদিও বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার তোফাজ্জল হোসেন কিছুটা দায় এড়িয়েই গেছেন। তিনি বলেছেন এই বিষয়টি নিয়ে তিনি কিছু জানেননা।

FOLLOW US ON:
Rate This Article:
NO COMMENTS

Sorry, the comment form is closed at this time.