Homeরাজ্য‘হিন্দুদের ছাগলের মাংসও খাওয়া উচিত নয়’ “গো-মাতা” প্রসঙ্গে মুখ খুললেন নেতাজীর নাতি।

‘হিন্দুদের ছাগলের মাংসও খাওয়া উচিত নয়’ “গো-মাতা” প্রসঙ্গে মুখ খুললেন নেতাজীর নাতি।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ সারা দেশ জুড়ে উত্তাল গণপিটুনি নিয়ে। গরু পাচারের সন্দেহে অনেক নিরীহ মানুষকে ও ভারতের বুকে গণপিটুনি খেয়ে মৃত্যু বরণ করতে হয়েছে। এবার তাই নিয়েই মুখ খুলেছেন বিজেপির প্রতিবাদি সাংসদ, তথা নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোসের নাতি চন্দ্র কুমার বোস।

তিনি গতকাল টুইটার অ্যাকাউন্টে লেখেন, “গান্ধীজী প্রায়ই কলকাতায় আমার দাদা শরৎ চন্দ্র বোসের এক নাম্বার উডবার্ন পার্কের বাড়িতে আসতেন। তিনি ছাগলের দুধ খেতে অভ্যস্ত ছিলেন। সেই কারণেই আমাদের বাড়িতে দুটি ছাগল পোষা হয়েছিল। দুধ খাওয়ার জন্য ছাগলকে মায়ের আসনে বসিয়েছিলেন হিন্দুদের রক্ষাকর্তা গান্ধীজী। হিন্দুদের সেই ছাগলের (পাঁঠা) মাংস খাওয়া উচিত নয়।”

আর এই নিয়েই এক সময় বিজেপি সভাপতি তথা ত্রিপুরার রাজ্যপাল চন্দ্র কুমার বোসের টুইটের রিটুইটে লিখেছেন, “আপনার কথা অনুসারে ছাগল মাতা। এমন কথা কখনও গান্ধীজী বা আপনার দাদা কেউই কখনও বলেননি। গান্ধীজী বা অন্য কেউ কখনও নিজেকে হিন্দুদের রক্ষাকর্তা হিসেবে দাবি করেননি। আমরা হিন্দুরা গরুকে আমাদের মা বলে মনে করি, ছাগলকে নয়। অনুগ্রহ করে এই ধরনের নোংরা মত ছড়াবেন না।”

আর এই নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। কিছু দিন আগেই গুজব রটে চন্দ্র কুমার বোস এবার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যাবেন, যদি ও নিজেই শে কথা উড়িয়ে দেন। তার পর এই ধরণের মতপার্থক্যে বিজেপির ঘরোয়া দ্বন্ধ ই বাহিরে আসছে বলে মত জানিয়েছেন রাজনীতিবিদরা।

FOLLOW US ON:
এবার কি
Rate This Article:
NO COMMENTS

Sorry, the comment form is closed at this time.