Homeদেশগোমাংস বিক্রির অভিযোগে ৬৮ বছর বয়েসী মুসলিম বৃদ্ধকে শুকরের মাংস খাওয়ানোর অভিযোগ।

গোমাংস বিক্রির অভিযোগে ৬৮ বছর বয়েসী মুসলিম বৃদ্ধকে শুকরের মাংস খাওয়ানোর অভিযোগ।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ  সাতই এপ্রিল এই ঘটনা ঘটে৷গোমাংস বিক্রির অভিযোগে ৬৮ বছর বয়েসী সওকত আলিকে বেধড়ক মারধর করে উত্তেজিত জনতা৷অসমে ফের গোমাংস বিক্রেতাকে নিগ্রহের অভিযোগ৷এমনকি অভিযোগ করা হয় তাঁকে শুকরের মাংস খাওয়ানো হয়।এই ঘটনার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ উত্তাল দেখা যায়।শওকত আলির নাগরিকত্ব নিয়েও প্রশ্ন তোলা হলে তাকে জিজ্ঞাসা করা হয় এনআরসি সার্টিফিকেট তাঁর রয়েছে কিনা,নাকি তিনি একজন বাংলাদেশী৷

এই গোটা ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে।ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বাজারের মধ্যে জল কাদায় মাখামাখি এক মুসলিম প্রৌঢ় বসে রয়েছেন,তাঁকে ঘিরে রয়েছে জনতা।তিনি বাজারের মধ্যে গোমাংস বিক্রি করছিলেন বলে অনুমান করে জনতা৷তারপরেই শুরু হয় নিগ্রহ ঝামেলা।স্থানীয় পুলিশ উদ্ধার করে শওকত আলিকে৷ পুলিশ সূত্রে খবর,গত ৩৫ বছর ধরে শওকত ওই বাজারের ব্যবসায়ী।সেখানেই তিনি গোমাংস বিক্রি করেন৷তবে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যায় যখন ওই ব্যবসায়ীকে শূকরের মাংস খেতে বাধ্য করা হয়।

আরেকটি ভিডিও ফুটেজ এ দেখা গিয়েছে উত্তেজিত জনতা এই ব্যবসাদার কে একটি প্যাকেট থেকে মাংস খেতে বাধ্য করছে৷ তাদের দাবি ছিল এটি শূকরের মাংস৷ওই বাজারের ম্যানেজারকেও নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ৷অজ্ঞাতপরিচয়ের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ।এই ব্যবসাদার কে মারধর করার ফলে তিনি বেশ আহত হয়েছে এবং স্থানীয় হাসপাতালে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।এই ঘটনায় সরব হয়েছেন এআইএমআইএম সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াসি৷ট্যুইট করে গোটা ঘটনার নিন্দা করেছেন।এবং এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক মাত্রায় ছড়িয়ে পড়েছে।সকলের কাছে এই ঘটনা নিন্দনীয় হয়েছে।

FOLLOW US ON:
Rate This Article:
NO COMMENTS

LEAVE A COMMENT