Homeপ্রচ্ছেদExclusive। গ্রাম পঞ্চায়েতে গীতাঞ্জলী ঘর নিয়ে তৃণমূলের সীমাহীন দুর্নীতি।

Exclusive। গ্রাম পঞ্চায়েতে গীতাঞ্জলী ঘর নিয়ে তৃণমূলের সীমাহীন দুর্নীতি।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ চোপড়া ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতে গীতাঞ্জলী ঘর নিয়ে সীমাহীন দুর্নীতি । এই দুর্নীতি সাথে জড়িত আছে শাসক দলের অনেক নেতা নেত্রী । ২০১৭-১৮ RTI রিপোর্ট থেকে পাওয়া এই তথ্য ।

সেখবস্তি গ্রামের প্রাক্তন মেম্বার সাহিরুদ্দিনের ভাই আব্দুল মজিদ , মোফাজল ইসলাম , মজিবুর রহমান , ছেলে তৌহিদ আনোয়ার অবিবাহিত বর্তমান ইসলামপুর কলেজের ছাত্র । মোট ৪ জন একই পরিবারের সদস্য । দাসপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কোর কমিটির সদস্য জয়নুল হকের ভাই রফিকুল ইসলাম ও স্ত্রী হাজেরা বানু । ইউনুস আলী প্রাক্তন পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য । নূর বানু বর্তমান পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য । সুচিত্রা রানী বৈদ্য তৃণমূল কিষান মোর্চার ব্লক সভাপতি শঙ্কার বৈদ্য মা । মহঃ আলী বর্তমান দাসপাড়া পঞ্চায়েতের প্রধান মনসুর আলম এর ভাই ।

তৃণমূল ব্লক কমিটির সদস্য বিনোদ বিশ্বাস এর ছেলে বিকাশ বিশ্বাস ও স্ত্রী গৌরী বিশ্বাস । বিকাশ বিশ্বাস অবিবাহিত বর্তমান De.El.Ed কলেজের ছাত্র । গোবিন্দ বিশ্বাস এর স্ত্রী দাসপাড়া হাই স্কুল এর পেরা টিচার , তাছাড়া তিনি নিজে অন্ধ স্কুলের টিচার । শরিফুল ইসলাম এর স্ত্রী আসা কর্মী । বর্তমান ঘিরণীগাঁও গ্রাম পঞ্চায়েতের মেম্বার নাজমা খাতুনের স্বামী জাকির হোসেন । একই পরিবারের ২ জন সদস্য হিমাংশু সরকারের ছেলে ও স্ত্রী । হালিমুদ্দিন বর্তমান ঘিরণীগাঁও পঞ্চায়েতের মেম্বার । প্রভাবশালী নেতা ডঃ পরিতোষ দাসের ছেলে সত্যজিৎ দাস লক্ষিপুর পঞ্চায়েত । তাহের আহমেদ বর্তমান পঞ্চায়েত সমিতির মেম্বার এর ছেলে মোঃ তালেব রেজা । এরা সবাই গীতাঞ্জলী ঘরের টাকা পেয়েছেন । কোনো সাধারণ মানুষ এই ঘরের টাকা পাইনি । ঘরের টাকা পেতে হলে তৃণমূল নেতা দের ১৫ – ২০ হাজার টাকা দিতে হয়, এমনটাই অভিযোগ তুলছেন এলাকার মানুষ।

FOLLOW US ON:
Rate This Article:
NO COMMENTS

LEAVE A COMMENT