Homeদেশনেই মোদী ম্যাজিক, ভোট জিততে কি কট্টর হিন্দুত্বই ভরসা গেরুয়া শিবিরের? উঠছে প্রশ্ন।

নেই মোদী ম্যাজিক, ভোট জিততে কি কট্টর হিন্দুত্বই ভরসা গেরুয়া শিবিরের? উঠছে প্রশ্ন।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ইতিমধ্যে দেশে মোদীঝড় ধাক্কা খেয়েছে। রাজনৈতিক সমালোচকদের মতে একের পর এক জনবিরোধী নীতিই এই বিপর্যয়ের জন্য দায়ী। এখন ২০১৯এর ভোট বৈতরণী পার হতে কট্টর হিন্দুত্বই ভরসা গেরুয়া শিবিরের।

১৯৯২সালে এই হিন্দুত্বের তাস খেলেই ক্ষমতা দখলের পথে এগিয়ে ছিল বিজেপি। মাটিতে মিশিয়ে দেয়া হয়েছিল উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যার বাবরি মসজিদকে। এতে বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল আরএসএস, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও বজরঙ দলগুলির মত সাম্প্রদায়িক দল গুলি। ও এতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি। দেশ জুড়ে সৃষ্টি হয়েছিল দাঙ্গা পরিস্থিতি। হিন্দুদের ভাবাবেগ খুঁচিয়ে তুলে তাদের বলা হয়েছিল মুসলিমরা এই দেশের দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিক। হিন্দুরাজ প্রতিষ্ঠা করে তাদের পায়ের তলায় রাখাই শ্রেয়।



বর্তমানে সামনে আর একটি লোকসভা ভোট। নোটবাতিল, জিসটি, ক্রমাগত উর্দ্ধমুখী রান্নার গ্যাস ও জ্বালানী তেলের দাম বেশ ব্যাকফুটে ফেলে দিয়েছে বিজেপিকে। যার প্রতিফলন ঘটেছে সম্প্রতি হওয়া পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে। ফলে ক্ষমতার অলিন্দে আসতে বিজেপি আবার তার সাম্প্রদায়িক তাস খেলতে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। অযোধ্যায় লক্ষাধিক সমর্থক জড়ো করে রামমন্দির গড়ার দাবী তুলেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও বজরঙ দল।

দেশের বর্তমান প্রধাণমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপর ও দাঙ্গা বাঁধানোর অবিযোগ রয়েছে। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি গুজরাটে দাঙ্গা লাগান। সব মিলিয়ে বেশ টালমাটাল অবস্থায় দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি।



FOLLOW US ON:
তৃণমূল,
Rate This Article:
NO COMMENTS

Sorry, the comment form is closed at this time.