Homeরাজ্যতৃণমূলের চালে কাবু হল পদ্ম শিবির। জঙ্গল মহলে প্রায় নিশ্চিহ্ন হতে চলেছে বিজেপি।

তৃণমূলের চালে কাবু হল পদ্ম শিবির। জঙ্গল মহলে প্রায় নিশ্চিহ্ন হতে চলেছে বিজেপি।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ২০১১ সালের মে মাসে রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর তৃণমূল কংগ্রেস জঙ্গলমহলের মাওবাদী অধ্যুষিত অঞ্চলে বামফ্রন্ট কে মুছে দিয়ে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করছে। কিন্তু এই অঞ্চলে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের ভোট কেটে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসে বিজেপি। পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং বাঁকুড়া জেলার জয়টি রাজ্যের মধ্যে জয়লাভ করে মোট আসনের প্রায় ৪০% ভোট পায় বিজেপি।

এই নিয়ে তৃণমূলের অভ্যন্তরেই শুরু হয় ধর পাকর। জানা যায় তৃণমূলেরে কোন কোন নেতা বিজেপি কে গোপনে সাহায্য করেছে তাদের তালিকা ও তৈরি হয়। তার পর ঝাড়গ্রাম ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সাংগঠনিক বৈঠক করেন পার্থ বাবু। এবং সেখান থেকেই বিজেপির ঘর ভাঙ্গাবার ব্লু প্রিন্ট তৈরি হয় বলেই মনে করছেন অনেকে।

জানা যাচ্ছে এক ঝাঁক বিজেপি নেতা যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে। এদের বেশির ভাগের ই ঝাড় গ্রামের বিজেপি নেতা। যেখানে ঝাড়গাম জেলা সহ-সভাপতি অজয় কুমার সেন সহ বিজেপি নেতা সুশীল কুমার, অমল কুমার কর, দীনবন্ধু কর্মকার, স্বপন কুমার মাহাতো, দীপঙ্কর ধর সহ অনেক কর্মী সমর্থক যোগ দেন বিজেপিতে।

প্রসঙ্গত, ঝাড়গ্রামের ৮০৬ টি গ্রাম পঞ্চায়েত আসনে বিজেপি ৩২৯, তৃণমূল ৩৯৯ এবং বামেরা পেয়েছে ১৪ টি আসন পেয়েছিল। এবার বিজেপির শক্তিশালী ঘাঁটি ভেঙ্গে রাজ্যে পদ্মফুল ছাঁটাই এর কাজেই হাত লাগাল তৃণমূল।

FOLLOW US ON:
Rate This Article:
NO COMMENTS

Sorry, the comment form is closed at this time.