৩ বছরে ৩ কোটি দলীয় সদস্য কমেছে বিজেপির। সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ এক সময় বুক ফুলিয়ে অমিত শাহ ঘোষণা করেছিলেন বিজেপির সদস্য এখন বেড়ে হল ১১ কোটি। এবার এই তথ্য নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। জানা যাচ্ছে, দলের কার্যকারিণী সভায় বিজেপি সভাপতি নিজেই আবার ঘোষণা করেছেন বিজেপির সদস্য সংখ্যা এখন ৮ কোটি। আর এই নিয়েই তরি হয়েছে বিতর্ক।

প্রসঙ্গত ২০১৪ সাল থেকেই অনলাইনের রেজিস্টেসনের মাধ্যমে সদস্য শুরু করে বিজেপি। এমন কি মিসকল দিয়েই হয়ে যাওয়া জাছহিল বিজেপির সদস্য। বিজেপি নেতা নিজে কলকাতা তে এসেও জনসভায় সকল কে ফোন বের করে মিস কল দিয়ে কেমন মাত্র বিজেপির সদস্য হবার জন্য আহ্বান জানান। এর মধ্যেই বিজেপির সদস্য বেড়ে হয় ৮.৮ কোটি।

চিনের কমিউনিস্ট পার্টিকে সরিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম রাজনৈতিক সংগঠনে পরিণত হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি- এমন ভাবেই নিজেদের সাফল্যের কথা তুলে ধরেন অমিত শাহ। এর পড়ে সদস্য সংখ্যা বেড়ে দাড়ায় ১১ কোটিতে।

মিসকল সদস্য নিয়ে মুখ খুলেছিল অনেক বিজেপি দলের নেতারা। সিপিআই(এম) নেরা সূর্য কান্ত মিশ্ররা দাবি তুলেছিলেন, আমাদের দলে ঘাম ঝড়িয়ে নেতা হতে হয়, মিস কল দিয়ে নয়। এই মিস কল সদস্যর ফলে অনেক ভুয়ো সদস্য যে ঢুকে পড়ে বিজেপির ঘরে টা প্রমান হয়ে গেল। গেরুয়া শিবিরে ৩ বছরে কমেছে অন্তত ৩ কোটি সদস্য| তবে বিজেপি দাবি করেছে ৩ কোটি সদস্যর তথ্য যাচাই এর কাজ চলছে, যাচাই করেই তাদের সদস্য পদ দেওয়া হবে। তবে বিজেপি যাই বলুক ৩ বছরে কমেছে অন্তত ৩ কোটি সদস্য কমে জাওয়াও যথেষ্ট চাপে পড়ল বিজেপি।