‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ রাফাল নিয়ে কংগ্রেসের অবস্থান বজায় রাখলেন রাহুল গান্ধী।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ বিধানসভা নির্বাচনে পাঁচ রাজ্যে থেকে সদ্য ক্ষমতা হারিয়েছে বিজেপি। বিজেপির এই হার এর পিছনে নরেন্দ্র মোদীর মিথ্যে প্রতিশ্রুতিকেই প্রধান কারণ বলছেন বিরোধী দলের নেতারা। কিন্তু বিজেপির কেন্দ্রের নেতারা এই হারার প্রসঙ্গে মোদীর গায়ে কাদা লাগতে দিতে ইচ্ছুক নয়। এর ই মাঝে রাফাল মামলা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে কিছুটা স্বস্থি পেল বিজেপি।

আজ রাফাল মামলা নিয়ে যুদ্ধবিমানসংক্রান্ত মামলা খারিজ করে দেওয়া হয় কোর্টের পক্ষে। এই প্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট জানান, "যুদ্ধবিমান কেনাবেচা নিয়ে তদন্তের কোনো প্রয়োজন নেই, অফসেট চুক্তিতে কাউকে সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হয়েছে, এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।" কেন খারিজ করা হল এই মামলা, সেই প্রসঙ্গে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি রঞ্জন কল ও বিচারপতি এম কে জোসেফের বেঞ্চ জানান, "যুদ্ধবিমান কেনার প্রযুক্তিগত ও পদ্ধতিগত বিষয়ে আদালত কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারে না।"



তবে এই নিয়ে মোদী সরকার কে আক্রমণ বজায় রাখলেন কংগ্রেস যুবরাজ। ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ বলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কে আক্রমণ করেন তিনি। তিনি রাফাল প্রসঙ্গে দুটি প্রশ্ন করেন, তিনি বলেন ৫২৬ কোটি টাকার রাফাল কেন ১৬০০ কোটি টাকায় কেনা হল? এবং কেন হ্যালকে ছেড়ে অনিল আম্বানির সংস্থাকে বরাত দেওয়া হল? তবে এই প্রসঙ্গে কোন উত্তর দেননি বিজেপি নেতারা। উল্টে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এই মন্তব্য করার জন্য রাহুল গান্ধী ও কংগ্রেসকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি করেন।

তবে রাফাল নিয়ে বিজেপি কে আক্রমণ বজার রাখছে কংগ্রেস। রাজনৈতিক বিশ্লেষক দের মতে, ৫ রাজ্যে বিজেপির পরাজয় এবং কংগ্রেসের উত্থানে অনেকটাই আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেস আগামী লোকসভা তে রাফায়েল এর ইস্যু কে কেন্দ্র করেই মসনদদের দখল নিতে চায় কংগ্রেস। তাই দেশের শীর্ষ আদালতের রায়ের পরেও নিজের মন্তব্যে অনড় থাকল রাহুল।