তিন মাস বেতন না পেয়ে বিক্ষোভের পথে জেট এয়ারওয়েজের কর্মীরা।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃমোদি জেট এয়ারওয়েজ বহুদিন ধরেই আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে নানা কারণে। বিমান চালক ও ইঞ্জিনিয়ার সহকর্মীরা তিন মাস বেতন না পাওয়ার কথা দাবি করেছেন তাই তারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র কে নিজেদের এই অবস্থার কথা জানিয়ে চিঠি লিখেছেন তারা আবেদন করেছেন তাদের সমস্যা সমাধানের জন্য ট্রেড ইউনিয়ন ন্যাশনাল আভিয়েটাস গিল্ড এর তরফ এ প্রধানমন্ত্রীর কাছে ওই চিঠিতে বলা হয়েছে "আমরা আশা করছি যে কোন সময় এই সংস্থা বন্ধ হয়ে যেতে পারে এরকম হলে হাজার হাজার মানুষ কর্মী হীন হয়ে পড়বে এবং জেট এয়ারওয়েশ বন্ধ হয়ে গেলে বিমানের সংখ্যা কমে যাবে ফলে ভাড়া বাড়বে যাত্রীদের সমস্যার মুখে পড়তে হবে। দুদিন আগে জেট এয়ারওয়েজ পাইলটরা হুমকি দিয়েছেন "৩১শে মার্চ পর্যন্ত বেতন না পাওয়া গেলে পয়লা এপ্রিল থেকে তারা আর কাজ করবেন না"

তারা আরও দাবি করেন যে তারা তিন মাস বেতন পাননি। তারা বলেছেন "আমরা বারবার সংস্থা কে জানিয়েছি কিন্তু তার কোন সুরাহা হয়নি" এখনো পর্যন্ত তারা তাদের কাজ বন্ধ করেননি কিন্তু তারা জানিয়েছেন এভাবে আর বেশিদিন চলতে পারে না তারা মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ছে তারা কোনমতেই চান না তাদের যাত্রীদের কোন রকম সমস্যায় ফেলতে।

এই সংস্থা ২৫ বছরের সবথেকে খারাপ আর্থিক অবস্থার মধ্যে রয়েছে। ৭ হাজার কোটি টাকা দেনা হয়ে গেছে ।ব্যাংক সাপ্লাই দের কাছে যথেষ্ট দেনার পরিমাণ বেড়েছে ।১১৯ টি প্লেনের মধ্যে বর্তমানে ৪১ টি প্লেন চালানো হচ্ছে। সাময়িক অসামরিক বিমান মন্ত্রকের তরফ এ ইতিমধ্যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে যাত্রীদের সুবিধার জন্য বিমানের সংখ্যা যাতে বাড়ানো হয় না বাড়ালে যাত্রীদের টাকা ফেরতের নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং রাজ্য অধীনে থাকা সমস্ত ব্যাংক গুলো ও জেট এয়ারওয়েজের এই দেনা শোধ করতে সাহায্য করছে।