নির্বাচনে হারের রেকর্ড গড়েও হার মানেননি এই ব্যক্তি।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ তামিলনাড়ু সালেম জেলার বাসিন্দা কে পদ্মরাজন তিনি চেষ্টার কোন কমতি রাখেননি। বারংবার ব্যর্থ হওয়ার পরেও তিনি এখন অবধি নিজের মতো করে নিজের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন এবং তিনি হার মানেননি এত সহজে এবং মানছেন ও না।একবার নয় দুবার নয় মোট একশো-সত্তর বার তিনি ভোটে দাঁড়িয়েছেন এবং প্রত্যেক বাড়ি তার ভাগ্যের জন্য হয়তো তিনি হেরে গিয়েছেন।কিন্তু তবুও তিনি হার মেনে নেননি এই কারণেই হয়তো তিনি ইলেকশন কিংবা নির্বাচনের রাজা হিসাবে পরিচয় লাভ করেছেন।

কে পদ্মরাজন পেশায় ছিলেন একজন হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক এর পরে তিনি ব্যবসা শুরু করেন এমনটাও শোনা গেছে তারপর তিনি স্থানীয় লোকসভা ভোটে দাঁড়ান এবং শুধু মাত্র এখানেই শেষ হয়ে যায়নি।রাষ্ট্রপতি হওয়ার দৌড়ে ও তিনি নাম লিখিয়েছেন।জানা গেছে উনিশশো অষ্টআশি সাল সাল থেকে তিনি ভোটে দাঁড়িয়েছেন। অটল বিহারী বাজপেয়ী,জয়ললিতা,করুণানিধি,একে অ্যান্টনি,নরসিমহা রাও,এসএম কৃষ্ণ-সবার বিরুদ্ধে ভোটে লড়েছেন পদ্মরাজন।

এই ব্যর্থতার জন্য তিনি আর্থিক দিক থেকেও প্রচুর টাকা ব্যয় করেছেন।এই ব্যয়ের হার কুড়ি লক্ষ টাকা।কিন্তু এ নিয়ে তিনি বিশেষ চিন্তিত নন।তামিলনাড়ু কেরালা অন্ধপ্রদেশ দিল্লি সব জায়গা থেকেই তিনি ভোটে দাঁড়িয়েছেন এবং বারণ করে নির্বাচনে তিনি হেরে গিয়েছে।এমন কি মনমোহনসিং,প্রণব মুখার্জি এসব রাজনৈতিক নেতাদের বিরুদ্ধে লড়েছেন।এই ব্যর্থতার জন্য লিমকা বুফ অব রেকর্ডে তার নাম রয়েছে।এবং তার কথার এর মধ্যে দিয়ে জানা আছে যে তিনি এই রকম আরো রেকর্ড গড়তে সামিল হয়েছেন।।