রাহুল কে ছাড় নয়। কেরালায় রাহুল কে টেক্কা দিচ্ছে বামেরা।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ভারতে ২০১৯ লোকসভা ভোট এর দ্বিতীয় পর্ব সম্পূর্ণ হয়েছে। এবার ২০১৯ লোকসভার ভোটের তৃতীয় পর্বের দিকে নজর। এ পর্বে ফের কেন্দ্রমুখী হবে ১৪ রাজ্যের ভোটার। এখন সবার চোখ এখন দক্ষিণের রাজ্য কেরালার উত্তর-পূর্বের জেলা ওয়ানাড়ে।কারণ সেখানে বামেদের বিরুদ্ধে লড়ছেন রাহুল গান্ধী। কারণ উত্তরপ্রদেশের আমেথির পাশাপাশি দ্বিতীয় আসন হিসেবে এই ওয়ানাড় থেকেও লড়ছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। এবং কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে তার এ লড়াই অনেকটা সহজই বলতে হয়।

কিন্তু পিছিয়ে নেই বামেরাও । এত সহজে জিততে দিতে রাজি নয় বামপন্থী কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া (সিপিআই-এম)।
কংগ্রেসের বিরুদ্ধে রীতিমতো টেক্কা দিচ্ছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন দলটি। সূত্রে এমনই খবর। মনোনয়ন জমার সময় রাহুলের সঙ্গে ছিলন বোন কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার পরই বিশাল সমর্থক বাহিনী নিয়ে বড় রোডশো করে কংগ্রেস। কিন্তু ওয়ানাড়কে কেন বেছে নিলেন রাহুল? দলের পক্ষ থেকে সাফাই দেয়া হয়, এই আসনে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব ভোটে লড়লে তা কেরালা এবং দক্ষিণের অন্য রাজ্যগুলোতে কংগ্রেসের কর্মীদের মনোবল বাড়াবে বলে তাদের মত।

কিন্তু কেরালায় প্রার্থী হয়ে রাহুল আদতে বামেদের বিরুদ্ধে একটি নতুন যুদ্ধের অভিমুখ খুললেন। কেরালার ওয়ানাড়ে রাহুল যখন সহজ জয় চাইছেন, সেটাকে চ্যালেঞ্জে হিসেবেই নিয়েছে বামপন্থীরা। আর তাই এখানে রাহুলের বিরুদ্ধে দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন সিপিআই’র শক্তিশালী নেতা পিপি সুনীরকে।

প্রতিপক্ষের পরাজয় নিশ্চিত করতে কোনো চেষ্টার কোনো ত্রুটি করছেন না লেফট ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (এলডিএফ)। কংগ্রেসের রোডশোর কয়েক দিন পরই ওয়েনাড়ের কেন্দ্র বলে পরিচিত কালপেটায় আরও বড় রোডশোর আয়োজন করেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।এক ইঞ্চি মাটি ছাড়তে রাজি নন এলডিএফ। তাদের কথায়, লড়াই হবে কঠিন।