এবার উত্তরপ্রদেশ ভেঙ্গে নতুন রাজ্য বুন্দেলখন্ড রাজ্য গঠনের দাবীতে উত্তালউত্তরপ্রদেশ।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ভারতে বড়োবড়ো রাজ্যগুলিকে ভেঙে ছোটো রাজ্য তৈরীর প্রবণতা নতুন কিছু নয়। আগেও উত্তরপ্রদেশ ভেঙে উত্তরাখন্ড ও বিহার ভেঙে ঝাড়খন্ড রাজ্য তৈরী হয়েছে। এখন আবার উত্তরপ্রদেশ ভেঙ্গে নতুন রাজ্য বুন্দেলখন্ড রাজ্য গঠনের দাবীতে উত্তাল উত্তরপ্রদেশ।

কিছুদিন আগেই লাগাতার আন্দোলনের ফলে অন্ধ্রপ্রদেশ ভেঘে তৈরী হয়েছে তেলেঙ্গানা। যা বর্তমানে ভারতের নবীনতম রাজ্য। পশ্চিমবঙ্গ ভেঙে গোর্খাল্যান্ড বানাবার দাবী উঠলেও তাতে সফল হননি বিক্ষোভকারীরা। গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ বা জিটিএ পেয়েই পৃথক রাজ্যের দাবী থেকে সরে আসতে বাধ্য হন আন্দোলনকারীরা। বর্তমানে ভারতে ২৯টি রাজ্য ও ৭টি কেন্দ্রশাষিত অঞ্চল রয়েছে।

ভারতে জনসংখ্যার দিক থেকে বৃহত্তম রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। এখানের পাহাড়ী অঞ্চল হল বুন্দেলখন্ড। সেখানকার 'বুন্দেলি সমাজ'ই মূলত পৃথক রাজ্যের দাবীতে আন্দোলন শুরু করেছে। তাদের দাবী উত্তরপ্রদেশের সাতটি ও মধ্যপ্রদেশের সাতটি জেলা নিয়ে গঠন করতে হবে নতুন রাজ্য বুন্দেলখন্ড।

প্রস্তাবিত 'বুন্দেলখন্ডে' থাকা উত্তর প্রদেশের সাতটি জেলা হলো—ঝাঁসি, বান্দা, মাহোবা, হামিরপুর, ললিতপুর, জালাউন ও চিত্রকুট। আর মধ্যপ্রদেশের সাতটি জেলা হলো—দাতিয়া, ছত্তরপুর, দামোহ, পান্না, সাগর, টিকামগড় ও বিদিশা। এর বাইরে আন্দোলনকারীরা রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশের আরও ছয়টি জেলাকে তাদের প্রস্তাবিত বুন্দেলখন্ড রাজ্যে অন্তর্ভুক্ত করতে চাইছে। এই ছয়টি জেলা হলো— ভিন্দ, গোয়ালিয়র, মরিনা, শিপুর, শিবপুরি ও ধৌলপুর।

উত্তর প্রদেশে বহুজন সমাজপার্টির নেত্রী মায়াবতী ২০০৭ সালে ক্ষমতায় এলে উত্তর প্রদেশ ভেঙে বুন্দেলখন্ড রাজ্য গঠনের একটি প্রস্তাব পাস হয়েছিল উত্তর প্রদেশ রাজ্য বিধানসভায়। তখন এই প্রস্তাবকে সমর্থন জানিয়েছিল বিরোধী দল কংগ্রেস ও বিজেপিও। কিন্তু ২০১২ সালে মায়াবতী ক্ষমতাচ্যুত হলে সেই প্রস্তাব চাপা পড়ে যায়। তবে পরবর্তী সময়ে সমাজবাদী পার্টি ক্ষমতায় এলেও তারা আর এই পৃথক রাজ্য গঠনের প্রস্তাব নিয়ে এগোয়নি।

সোমবার থেকে উত্তর প্রদেশের বুন্দেলখন্ডের মাহোবা জেলায় আম্বেদকর পার্কে ২৫০ জন আন্দোলনকারী মাথা মুড়িয়ে এক অভিনব আন্দোলনে শামিল হয়েছেন। অনেক দিন ধরে অনশন আন্দোলনও চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা। পৃথক রাজ্য না গড়া পর্যন্ত তাঁরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেই জানিয়েছেন তাঁরা।

 

পড়ুনঃ বিজেপির রথযাত্রা কে এবার টেক্কা দেবে বামেরা। ৭৮হাজার বুথে, ৫০হাজার কিমি হাঁটবে, ৭লক্ষ মানুষ।

 

 

 

 

 

আমাদের খবর দেখতে যুক্ত থাকুন আমাদের ফেসবুক পেজে, ক্লিক করুন এখানে
আমাদের খবর Whatsapp এ পেতে, যুক্ত হোন আমাদের Whatsapp গ্রুপে, ক্লিক করুন এখানে