দুজনেই মেসি, তবে এক জন মেসি আরেক জন ‘ইরানি মেসি’।

১০দিক২৪ঃ পৃথিবীতে দুজন মানুষের মধ্যে দেখার মিল থাকেই, কিন্তু খুব কম ক্ষেত্রেই সেগুল সামনে আসে। তবে ফুটবলের যুবরাজ মেসির সঙ্গে যখন হবহু মিলে যায় একজনের মুখ তখন তো তাকে নিয়ে চর্চা করা টাই স্বাভাবিক। তার নাম রিজা পেরেস্তেস, যদিও তিনি বেশি পরিচিত ‘ইরানি মেসি’ হিসেবে। কারণ, ইরানের এই যুবক দেখতে হুবহু আর্জেন্টিনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসির মতো।

তবে এটা খুব একটা উপভোগ্য বিষয় ও নয়। অনেক ঝক্কি পোয়াতেও হয়েছে রিজা পেরেস্তেসকে। নিজ দেশেই গ্রেফতার হতে হয়েছে পুলিশের হাতে। যেতে হয়েছে কারাগারে।
রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর পর নতুন গুজব রটে, নতুন করে বিড়ম্বনায় পড়েছেন পেরেস্তেস। যদিও সে গুজব সত্যি ছিল না, তাই এযাত্রা গ্রেফতার হননি তিনি।

গুজবের মূলে রয়েছে একটি ছবি। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া সেই ছবিতে দেখা যায়, মেসির মতো দেখতে এই যুবক রুশ পুলিশ সদস্যদের মাঝে দাঁড়িয়ে আছেন। এ ছবি দেখার পর ইরানের কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়, রিজাকে গ্রেফতার করেছে রাশিয়ার পুলিশ। যদিও বিষয়টি পরিষ্কার করে ইনস্টাগ্রামে নিজ অ্যাকাউন্ট থেকে গ্রেফতারের খবর উড়িয়ে দিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেন রিজা। ভিডিওতে দেখা যায়, ফুটবপ্রেমীরা ঘিরে রয়েছে তাকে।

এভাবেই ফুটবলপ্রেমীরা ঘিরে রাখে রিজা পেরেস্তেসকে। ডানে ভাইরাল হওয়া ছবি।

‘ইরানে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে, মস্কোতে স্থানীয় জনগণ ও অন্যান্য দেশ থেকে রাশিয়ায় আসা ফুটবলপ্রেমীদের ভোগান্তির কারণে আমাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এটা সত্যি না। এই ভিডিওতে দেখুন, আসলে কী ঘটেছিল। বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে আসা ভক্তরা আমার সাথে সেলফি তুলতে থাকেন। এ জন্য সেখানে যানজট হয়ে যায়। এটা দেখে মস্কোর পুলিশ আমাকে অনুরোধ করে ক্রেমলিন ওয়ালের দিকে নিয়ে যায়। আমাদের চমৎকার আলাপ হয়েছে। তারাও এসে আমার সাথে সেলফি তুলেছে, অটোগ্রাফ নিয়েছে’, বলেন রিজা। আপাতত মেসি কে হাতে না পেয়ে ‘ইরানি মেসি’ কে আলিঙ্গন করে সেলফি তুলে ব্যস্ত ফুটবল প্রেমীরা।