মমতার ছবি বিক্রির অর্থের হিসেব রাখেতেন মুকুল রায়? CBI এর সামনে বিস্ফোরকমানিক।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ ভোটের আগেই তৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে সিবিআই এর। এবার এই কথাকেই সঠিক প্রমাণ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ মানিক মজুমদারের বাড়ীতে গিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেন সিবিআই আধিকারিকরা।

সিবিআইএর তরফ থেকে জানানো হয়েছে মূলত 'জাগোবাংলা'র অর্থের উৎস জানার জন্যই এই জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হয়। কারণ মানিক মজুমদার জাগোবাংলার অ্যাকাউন্টের অন্যতম স্বাক্ষরকারী। এবং এখনও পর্যন্ত যা জানা গেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবি বিক্রির অর্থ বেশীরভাগটাই গেছে জাগোবাংলার অ্যাকাউন্টে। সিবিআই সুত্রে জানা গেছে মানিকবাবু বলেছেন মুখ্যমন্ত্রীর ছবি বিক্রির অর্থ বা মুখপত্রের টাকার হিসেব সবটাই রাখতেন এক তৎকালীন তৃণমূল নেতা। যিনি এখন বিজেপিতে। ধারনা করা হচ্ছে মুকুল রায় কেই ইঙ্গিত করা হয়েছে এর মধ্যে দিয়ে। এর আগেও নানান চিটফান্ডের মালিকরা এই নেতার নাম করেছেন। সিবিআই জানিয়েছে প্রয়োজনে সেই নেতাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।




যদিও বৃহস্পতিবার এই ঘটনার আগের দিনই, অর্থাত বুধবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতা বইমেলার উদ্বোধনে গিয়ে বলেন তিনি সাংসদ কোটার পেনশন নেননা। বিধায়কের মাইনেও নেননা। গানের সুর ও বইয়ের রয়্যালটি দিয়েই তার চলে যায়। তিনি দাবী করেন তিনি ছবি বেচে কখনো টাকা নেননি। যদিও এতে বিরোধীরা ব্যঙ্গ করে বলছেন কিছুদিন আগেই তিনি বলেছিলেন ছবি বেচেই দল চালান। হঠাৎ তা পরিবর্তনের কারণ কী? সিবিআই হানা না সামনের লোকসভা ভোট?