হুগলীতে মুখ্যমন্ত্রীর সফর নিয়ে দিন ভর মানুষের বাড়ল ভোগান্তি।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ গতো 3 ফেব্রুয়ারি হয়ে গেছে বামেদের ব্রিগেড। কানা ঘুসো শোনাচ্ছে সেই থেকেই না কি ঘুম উড়েছে শাসক দলের।তাই বারবার নিজের দলের সংগঠন কে তৈরি করার চেষ্টা করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এসেছিলেন হুগলীর তারকেশ্বর এ। আর সেই নিয়েই হয়রানি হতে হয় সাধারণ মানুষকে।

আজ তারকেশ্বর এ দুপুর 2 সময় এসেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।সভাও করেছেন তিনি।আর নাস্তানাবুদ হয়েছেন সাধারণ মানুষ।অনেক আগে থেকেই ভাণ্ডারহাটি থেকে তারকেশ্বর যাবার রাস্তা বন্ধ করে দেয় পুলিশ। ভাণ্ডারহাটির মানুষকে তারকেশ্বর যেতে হলে সাত কিলোমিটার ঘুরপথে যেতে হতো।




এ তো গেলো রাস্তার কথা।
এবার আসি যানবাহন এর কথায় , মিটিং দুপুরে হলেও সকাল থেকেই সব বাস তুলে নেওয়া হয়,এ ছাড়াও ট্রেকআর ও তুলে নেওয়া হয়। সমস্যায় পরে সাধারণ মানুষ।

যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তারকেশ্বর এ ভাষণ দিচ্ছেন তখনই সাধারণ মানুষ ঘন্টার পর ঘন্টা বসে আছেন রাস্তার ধারে বাসের অপেক্ষায়।
এক সাধারণ মানুষের কথায় " মানুষকে সমস্যায় ফেলে কিসের মিটিং ?" ।
আমরা দেখেছি মিটিং এর উদ্দেশে অনেক বাস গেলেও বাস এ লোক ছিলো হাতে গোনা কয়েকজন।
এখন এটাই দেখবার ভোটের বাক্সে এর কতোটা প্রভাব পরে।