Homeদেশমানিক বদলে ‘হিরা’, ত্রিপুরায় বন্ধ হয়ে গেল স্থায়ী পেনশন। বিজেপির বিরুদ্ধে বাড়ছে ক্ষোভ।

মানিক বদলে ‘হিরা’, ত্রিপুরায় বন্ধ হয়ে গেল স্থায়ী পেনশন। বিজেপির বিরুদ্ধে বাড়ছে ক্ষোভ।

১০দিক২৪ ব্যুরোঃ কথা ছিল, ক্ষমতায় এসে ঘরে ঘরে চাকরি দেওয়া হবে। কথা ছিল, প্রত্যেক মানুষ কে রুজি রুটির সংস্থান দেবে বিজেপি। কিন্তু ক্ষমতায় এসে ভোল পাল্টানো বিজেপি। আগামী দিনে যারা সরকারি কর্মচারী হিসেবে কাজে যোগ দেবেন তাদের ই স্থায়ী পেনশন বন্ধ করে দিল ত্রিপুরার বিপ্লব দেবের সরকার।

জানা যাচ্ছে গত সপ্তাহে অর্থ দপ্তর থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। যেখানে জানানো হয়, নতুন সরকারি কর্মীদের জন্য আর স্থায়ী পেনশনের ব্যবস্থা থাকবে না। ১ জুলাই, ২০১৮ থেকে যারা যুক্ত হবেন কাজে তাদের থেকেই শুরু হবে এই ব্যবস্থা। এই কন্ট্রিবিউটরি পেনশন স্কিম অনুযায়ী, সরকারি কর্মচারী দের একাংশ অর্থ সরকার খোলা বাজারে খাটাবে। যখন কোন কর্মচারী অবসর নেবেন সেই সময়ে শেয়ার বাজারের দরের ওপর নির্ভর করবে তাঁদের অবসরকালীন প্রাপ্তি।

সরকারের তরফে জানান হয়েছে, পেনশন খাতে ২০০৬-০৭ সালে রাজ্যের যা খরচ হত তার থেকে ২০১৭-১৮ সালের খরচ  ১৩০০ কোটি টাকার ওপর বেড়েছে। তাই এই অর্থ আর দিতে চায় না রাজ্য সরকার। এবার তাই, অসম, হিমাচল, কর্ণাটক, অন্ধ্রর মত রাজ্য গুলোর পথে ই হাঁটছে ত্রিপুরা। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে সিপিএম। সিপিএমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মানুষ কে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসে মানুষের অর্জিত অধিকার হনন করতে চাইছে বিজেপি। এই নির্দেশিকার বিরুদ্ধে আগামী দিনে মাঠে নামতে চলেছে বামেরা। তবে এই ঘটনায় সাধারণ মানুষ ও অনেক টাই ক্ষিপ্ত। মোদী জি বলেছিলেন, মানিক তাড়িয়ে হিরা আনতে, আর এখন  হিরা সামলাতে মানুষের প্রাণ ওষ্ঠাগত হচ্ছে বলেই মত জানিয়েছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

পড়ুন ঃ একই মঞ্চে তৃণমূল, সিপিএম। অরূপের ইয়র্করে ছয় মারলেন শ্যামল। 

FOLLOW US ON:
Rate This Article:
NO COMMENTS

Sorry, the comment form is closed at this time.