Homeরাজ্যবহিষ্কৃত নেতা থেকে অভিনেতা, “চাদর প্রেমী” ঋতব্রত। ছবির শুটিং হুগলীতে।

বহিষ্কৃত নেতা থেকে অভিনেতা, “চাদর প্রেমী” ঋতব্রত। ছবির শুটিং হুগলীতে।

এ যেন দশচক্রে ভগবান ভুত! ছিল রুমাল হয়ে গেল বিড়াল গোছের অবস্থা। একটা সময় সিপিএম-এর নবীন তাত্ত্বিক নেতা হিসাবে নাম কুড়িয়েছিলেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়।

মার্ক্সবাদের যোগ্য শিষ্য নামে নিজেকে পরিচয় দিতেই বেশি পছন্দ করতেন, দামি আই ফোন এবং অ্যাপেল ঘড়িতে সুসজ্জিত ঋতব্রত। কিন্তু সেসব এখন অতীত। গায়ের দামি পারফিউমের সুগন্ধের থেকেও, তার নামে কেচ্ছা যে বেশি ছড়িয়েছে একথা আর নতুন করে বলার কিছু নেই।

কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় এবং একটি অজানা নামের মেয়ের ছবি ভাইরাল হয়। ছবি-তে ক্যাপশনও দেওয়া হয়েছিল যে নেদারল্যান্ডসে স্ত্রী-র সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছেন ঋতব্রত। কিন্তু, নম্রতা দত্ত নামে এই যুবতীর দাবি, দিল্লির ফ্ল্যাটে ঋতব্রত তাঁর সঙ্গে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মোট উনিশবার যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন। এটা নাকি ছিল তাঁদের প্রথম যৌন সম্পর্ক স্থাপনের দিনের এক টুকরো ছবি। টুইটারে ফলাও করে সে কথাও লিখেছেন নম্রতা নিজেই। সেই সময় ফেসবুক জুড়ে “চাদর প্রেমী” বলে নানান রকমের ট্রল শুরু হয়। কিছু অশ্লীল ভিডিও দাবানলের মত ছড়িয়ে পরে ফেসবুকের ওয়াল গুলোতে।

এসবের পর কেটেছে অনেক গুলো দিন, সিপিআইএম থেকে বহিষ্কারের পর, কখন ও বিজেপি কখন ও তৃণমূলের মন ভোলাবার চেষ্টা করেছেন তিনি সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

কিন্তু এখন অতীত ভুলিয়ে বহিষ্কৃত নেতা থেকে টলি পাড়ার অভিনেতা হবার দিকে মন দিয়েছেন ঋতব্রত। জানা যাচ্ছে পরিচালক দেবজিত লাহিড়ীর পরিচালনায় ‘সার্কল’ নামক একটি শর্ট ফিল্মে অভিনয় করছেন তিনি। হুগলীর চুঁচুড়া এবং চন্দননগরে ছবিটির শ্যুটিং হয়েছে বলে জানা গেছে। ঋতব্রত একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তিনি ছবিটি করার জন্য একটি পয়সাও নেন নি। তবে ‘১৫ মিনিটের’ এই সিনেমা কি পারবে দেড় মিনিটের কেচ্ছার ভিডিও কে ছাপিয়ে এক উজ্জ্বল ভাবমূর্তি তৈরি করতে, সেদিকেই তাকিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া জগতের সদস্যরা।

FOLLOW US ON:
Rate This Article:
7 COMMENTS